মেইন ম্যেনু

ভোট দিন, ভোট দিন

মুস্তাফিজুরকে ভোট দিন

বাংলাদেশ জাতীয় দলে রাজকীয় অভিষেক হয়েছিল মুস্তাফিজুর রহমানের। ভারতের বিপক্ষে ক্যারিয়ারের প্রথম ম্যাচেই পাঁচ উইকেট তুলে নেন তিনি। তার অসাধারণ বোলিং নৈপূণ্যে বাংলাদেশ জয় পায় ৫ উইকেটে। ঠিক পরের ম্যাচেও রুদ্রমূর্তি ধারণ করেন মুস্তাফিজ। পকেটে পুরেন ৬টি উইকেট। সেই ম্যাচ জয়ে নিশ্চিত হয় মাশরাফির দলের সিরিজ জয়।

এরপর দক্ষিণ আফ্রিকা ও জিম্বাবুয়ের বিপক্ষেও চলে মুস্তাফিজের বোলিং-তাণ্ডব। আফ্রিকার দুই দলকে কোণঠাসা করে সিরিজ নিশ্চিত করে বাংলাদেশ। অভিষেকের পর এ পর্যন্ত নয়টি ওয়ানডে খেলেছেন মুস্তাফিজ। ২৬টি উইকেট দখলে। গড় ১২.৩৪। ৫টি টি-২০ খেলে ১৮.৬৬ গড়ে নিয়েছেন ৬টি উইকেট। এ ছাড়া দুটি টেস্ট খেলে ভাণ্ডারে সংগ্রহ করেছেন ৪টি উইকেট। সব মিলে বাংলাদেশের ক্রিকেটে মুস্তাফিজের জয়জয়কর।

শুধু দেশের অভ্যন্তরেই নয়। বিশ্ব ক্রিকেটেও সাড়া ফেলে দিয়েছেন তিনি। প্রথম বাংলাদেশী হিসেবে আইসিসির বর্ষসেরা ওয়ানডে একাদশে জায়গা পান ২০ বছর বয়সি এই পেসার। এবার আরো কয়েকটি স্বীকৃতির অপেক্ষায় রয়েছেন তিনি।

২০১৫ সালে বর্ষসেরার পুরস্কার দিচ্ছে ক্রিকেট দুনিয়ায় জনপ্রিয় ওয়েব পোর্টাল ক্রিকইনফো। এই তালিকায় বর্ষসেরা বোলিংয়ে মনোনয়ন পেয়েছেন মুস্তাফিজ। এ ছাড়া বর্ষসেরা উদীয়মান ক্রিকেটারের তালিকায়ও স্থান পেয়েছেন তিনি।মুস্তাফিজুর2

ক্রিকইনফো ২০১৫’র বর্ষসেরা অধিনায়কের তালিকায় রয়েছেন মাশরাফি বিন মুর্তজা। টেস্ট ব্যাটিংয়ে তামিম ইকবাল, ওয়ানডে ব্যাটিংয়ে মাহমুদউল্লাহ রিয়াদ ও বোলিংয়ে রুবেল হোসেন।

উদীয়মান ক্রিকেটারের তালিকা ছাড়া অন্যান্য বিভাগে বর্ষসেরা নির্বাচন করবেন বিচারকরা। আর উদীয়মান ক্রিকেটারের পুরস্কারের জন্য রাখা হয়েছে ভোটের ব্যবস্থা। তাই সাধারণ পাঠকরা ক্রিকইনফোর সাইটে পছন্দের ক্রিকেটারকে ভোট দিতে পারবেন। তার জন্য যেতে হবে নিচের লিংকে।

http://www.espncricinfo.com/awards2015/content/site/awards2015/debut.html   

এবার লিংকটি খুললেই পাওয়া যাবে মনোয়ানপ্রাপ্ত ১০ জন ক্রিকেটারের ছবি। প্রথম সারিতে রয়েছে দক্ষিণ আফ্রিকার সিমন হারমার ও মুস্তাফিজের ছবি। এছাড়া আপনার মোবাইল থেকেও ভোট দিতে পারবেন। মোবাইলে অবশ্য মুস্তাফিজের অবস্থান দ্বিতীয়। সেখানে মুস্তাফিজের ছবিতে ক্লিক করতে হবে। পেজের নিচের দিকে আপনার নাম ও ই-মেইল আইডি দিতে হবে।এর ঠিক নিচেই লেখা আছে `Vote Now’। সেখানে ক্লিক করলেই আপনার ভোট চলে যাবে মুস্তাফিজের বাক্সে। শুরু হোক মুস্তাফিজুরকে ভোট দেয়া।