মেইন ম্যেনু

মুস্তাফিজের ওয়ানডে অভিষেকে বাধা ছিলেন পাপন!

২০১৫ সালে বাংলাদেশ ক্রিকেটের সবচেয়ে বড় আবিস্কার তিনি। অভিষেক হবার ম্যাচে ভারতের বিপক্ষে সিরিজের প্রথম ওয়ানডেতেই ৯.২ ওভার বোলিং করে ৫০ রান খরচায় পেয়েছিলেন পাঁচ উইকেট। দ্বিতীয় ওয়ানডেতে ছিলেন আরো বিধ্বংসী। ১০ ওভারে ৪৩ রান দিয়ে পেয়েছিলেন ছয় উইকেট। অভিষেকের পর থেকে এখন পর্যন্ত নয় ওয়ানডে খেলে নিয়েছেন ২৬ উইকেট।

কিন্তু, ভারতের বিপক্ষে প্রথম ওয়ানডের আগে সেই মুস্তাফিজুর রহমানের অভিষেক হওয়া নিয়েই নাকি সংশয় ছিল ! দেশের শীর্ষস্থানীয় ইংরেজী দৈনিক নিউ এজ জানিয়েছে, ভারতের বিপক্ষে এগারো জনের দলে বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ড (বিসিবি) সভাপতি নাজমুল হাসান পাপন মুস্তাফিজের বদলে দলে দেখতে চেয়েছিলেন স্পিনার আরাফাত সানিকে।

পত্রিকাটি আরও জানায়, ম্যাচের আগে নাজমুল হাসান টিম ম্যানেজমেন্টের কাছে এগারো জন খেলোয়াড়ের তালিকাও পাঠিয়েছিলেন। সেই তালিকায় মুস্তাফিজের নাম ছিল না, ছিল সানির নাম। তবে তার এই তালিকা প্রত্যাখান করে টিম ম্যানেজমেন্ট। সেটা না করলে হয়তো বাংলাদেশের ক্রিকেটের এ বছরের সবচেয়ে উজ্জ্বল নামটি অন্ধকারেই থেকে যেতো।

ভারত সিরিজ নিয়ে দলের ভেতরের আরেকটা খবরও জানিয়েছে ইংরেজি দৈনিকটি। তাদের দাবি, ভারতের বিপক্ষে সিরিজের তৃতীয় ওয়ানডেতে বাংলাদেশ কোচ চান্দিকা হাতুরুসিংহে নাকি চেয়েছিলেন প্রথমে বল করুক বাংলাদেশ। কিন্তু অধিনায়ক মাশরাফি বিন মুর্তজা দলকে ব্যাট করতে পাঠাতে চাইছিলেন।

তবে শেষ পর্যন্ত কোচের কথা রাখতেই কিনা, সেই ম্যাচে টসে জিতে বল করার সিদ্ধান্ত নেন মাশরাফি। সিদ্ধান্তটা যে খুব ভালো ছিল না, সেটা প্রতিফলিত হয়েছিল ম্যাচের ফলাফলে। প্রথমে ব্যাট করে ভারত ছয় উইকেট হারিয়ে করে ৩১৭ রান। জবাবে বাংলাদেশ দল ৪৭ ওভারে ২৪০ রান করে অলআউট হয়।