মেইন ম্যেনু

মুস্তাফিজের দখলে অবিশ্বাস্য ১২টি রেকর্ড!

আন্তর্জাতিক ক্রিকেটে অভিষেকের পর থেকেই একের পর এক বিস্ময়ের আবির্ভাব ঘটাচ্ছেন বাংলাদেশ জাতীয় ক্রিকেট দলের পেস বিস্ময় মুস্তাফিজুর রহমান। বয়স মোটে ২০ বছর। এই বয়সেই বিশ্বের বাঘা বাঘা ব্যাটসম্যানদের আতঙ্কের কারণ হয়ে দাঁড়িয়েছেন তিনি।–অনলাইন।

টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপের মত বৈশ্বিক টুর্নামেন্টেও নিজেকে চেনাতে সক্ষম হয়েছেন। ডাক পেয়েছেন বিশ্বের সবচাইতে জনপ্রিয় ঘরোয়া টি-টোয়েন্টি ক্রিকেট টুর্নামেন্ট আইপিএলেও। সেখানেও পরিচিত রুপেই দেখা গেছেন বাংলাদেশের এই টাইগার পেসারকে।

২০১৬ বছরটি এখনও শেষ হয় নি। তার আগেই বাংলাদেশের এই তরুণ পেসার নিজের ঝুলিতে পুরেছেন ক্রিকেটের ১২ টি রেকর্ড।

চলুন দেখে নেয়া যাক মুস্তাফিজের বিরল রেকর্ডগুলো-

১. ওয়ানডে সিরিজে অভিষেকেই সর্বোচ্চ উইকেট নেয়ার যৌথ বিশ্ব রেকর্ড গড়েন মুস্তাফিজ!

২. ৩ ম্যাচের সিরিজে অভিষেকেই সর্বোচ্চ উইকেট নেয়ার একক বিশ্ব রেকর্ড এখন এই তরুণ পেসারের!

৩. জিম্বাবুয়ের ব্রায়ান ভিটরির পর ওয়ানডে ইতিহাসের দ্বিতীয় বোলার হিসেবে ক্যারিয়ারের প্রথম দুই ম্যাচেই ইনিংসে ৫ উইকেট নেন তিনি।

৪. ওয়ানডে ইতিহাসে প্রথম দুই ম্যাচে ১১ টি উইকেট নিয়েছিলেন মুস্তাফিজ। ক্যারিয়ারের প্রথম দুই ওয়ানডেতে এটাই সর্বোচ্চ, ব্রায়ান ভিটরির নিয়েছিলেন ১০ উইকেট।

৫. আন্তর্জাতিক টি-টোয়েন্টি ক্রিকেটে সবচাইতে মিতব্যয়ী বোলিংয়ের রেকর্ড এখন মুস্তাফিজের দখলে।

৬. মাশরাফি-রুবেলের পর তৃতীয় বাংলাদেশি হিসেবে ইনিংসে ৬ উইকেট নিয়েছেন মুস্তাফিজ।

৭. প্রথম বাংলাদেশি পেসার হিসেবে টি টোয়েন্টিতে ৫ উইকেট শিকার করেছেন তিনি।

৮. প্রথম বাংলাদেশি হিসেবে কলকাতার ইডেন গার্ডেনে ৫ উইকেট নেন এই তরুণ পেস বিস্ময়।

৯. সবচেয়ে কম বয়সী বোলার হিসেবে টি টোয়েন্টি বিশ্বকাপে ৫ উইকেট শিকার করেন তিনি, প্রতিপক্ষ নিউজিল্যান্ড।

১০. বিশ্বের একমাত্র বোলার হিসেবে মুস্তাফিজ টি টোয়েন্টি বিশ্বকাপে এক ইনিংসে ৪ জন ব্যাটসম্যানকে বোল্ড করেছেন।

১১. বিশ্বের একমাত্র ক্রিকেটার হিসেবে অভিষেকেই টেস্ট ও ওয়ানডেতে ম্যান অব দ্যা ম্যাচ হয়েছেন।

১২. প্রথম বাংলাদেশি হিসেবে আইসিসির বর্ষসেরা একাদশে জায়গা পেয়েছেন।