মেইন ম্যেনু

মূলত এই ১০টি কারনেই পৃথিবীতে আজ বাঙালি নারীরা শ্রেষ্ঠ

পৃথিবীতে আমরা অনেক নারীর দেখি। দেখি অনেক রূপ। তবে রূপে-গুণে ভরপুর এমন নারী কোথায়? এমন প্রশ্ন যদি কেউ করেন, তবে বলব, বঙ্গে। অর্থাৎ বাংলা নারীরা মনে-প্রাণে যেমন গুণ ধারণ করেন, তেমনি রূপও তারা ধারণ করেন অঙ্গে।

আর এ জন্যই রূপে-গুণে বিশ্বে শ্রেষ্ঠ বেঙ্গল নারীরাই। আসুন কেন তারা শ্রেষ্ঠ, তা জেনে নিই। তুলে ধরা হল তার ১০টি কারণ দেওয়া রইল।

১। চোখ : বলা হয়, বাঙালি মেয়েদের মতো এমন আকর্ষণীয় চোখ নাকি খুব কম মেয়েরই আছে। যথার্থ কথা বটে। তর্কাতীত।

২। মেধা : বাঙালি মেয়েদের মেধা অতুলনীয়। সর্বদা পড়াশোনাই মেধার বিচার করে, তা সঠিকনয়। খেলার থেকে ঘরকন্না, বাঙালি মেয়েদের ট্যালেন্ট স্পষ্ট প্রায় সব ক্ষেত্রে।

৩ : আত্মবিশ্বাস : বঙ্গনারীর ঐতিহ্য, অহঙ্কার। আত্মবিশ্বাসী নয় বলে বাঙালি পুরুষকে খোঁটা দেওয়া যেতে পারে। কিন্তু বঙ্গনারীকে? নৈব নৈব চ!

৪। স্পষ্টবক্তা : যদি কেউ বলেন, বাঙালি মেয়েরা মুখচোরা, তা হলে তা সঠিক হবে না। দেখা গিয়েছে, বাঙালি মেয়েরা রীতিমতো স্পষ্টবক্তা হয়ে থাকেন।

৫। স্থান-কাল-পাত্র নির্বাচন করে কথা বলায় বাঙালি মেয়েদের জুড়ি মেলা ভার। কোথায়, কখন, কাকে কী বলতে হবে, তা এরা খুব ভাল করে জানেন।

৬। ট্যালেন্ট : বহুমুখী প্রতিভার ভাণ্ডার একেকজন। এমন বঙ্গনারী খুঁজে পাওয়া ভার যিনি শুধুমাত্র একটি বিষয়েই দক্ষ।

৭। রান্না : এটা নিয়ে বেশি কথা না-বলাই ভাল। চচ্চড়ি থেকে ডালনা, কোপতা থেকে কোর্মা, সাবলীল যাতায়াত সর্বত্র।

৮। পোশাক : শাড়ি তো বটেই, হালফিলে জিন্‌স-টপ-স্কার্ট-সালওয়ার, সব পোশাকেই দিব্যি মানিয়ে গিয়েছেন এরা।

৯। আদরের ডাকনাম : পিকু, বুলু, মোহর থেকে শুরু করে বৃষ্টি, মেঘ, ডাকনামের এমন সৌন্দর্য আর ভ্যারাইটি কোথায় পাবেন?

১০। সব শেষে, টক-ঝাল-মিষ্টি ঝগড়ায় এঁদের জুড়ি মেলা ভার। মুখ ভার করে, চোখের কোণে জল এনে দাঁড়ালে আপনি প্রেমে পড়তে বাধ্য।