মেইন ম্যেনু

মেসিকে নিয়ে ম্যারাডোনার এ কেমন প্রশ্ন!

বিশ্ব ফুটবলে অন্যতম পরাশক্তি আর্জেন্টিনা। দুনিয়া কাঁপানো বেশ কিছু তারকা ফুটবলারের জন্য দলটির ভক্তসংখ্যা অগণিত। কিন্তু যে কোনো আসরে ফেভারিট হিসেবে যোগ দেয়া এই দলটি সর্বশেষ বড় কোনো শিরোপা জিতেছে ১৯৯৩ সালে। এরপর থেকে শিরোপার জন্য অনেক তৃষিত প্রহর কাটিয়েছে আলবেসিলেস্তেরা। কিন্তু বর্তমান দলটিতে ‘গ্রহের সেরা’ উপমা পাওয়া ফুটবলার লিওনেল মেসি থাকা সত্বেও সেই খরা ঘোচাতে পারছে না তারা।

গতবার ব্রাজিল বিশ্বকাপের ফাইনালে উঠলেও ভাগ্যদেবীর সমর্থন না থাকায় বিশ্বসেরার মুকুট পরতে পারেনি মেসিরা। সেই ক্ষতস্থানে মলম দিতে বছর ঘুরে তাদের সামনে এসেছিল মহাদেশীয় শ্রেষ্ঠত্বের লড়াই কোপা আমেরিকা। বিশ্বকাপের বর্তমান রানার্সআপ হলেও ব্রাজিল ও স্বাগতিক চিলির সঙ্গে অন্যতম ফেভারিট ধরা হয়েছিল তাদের। কিন্তু তারকা সমৃদ্ধ দল নিয়ে চূড়ান্ত লড়াইয়ে গেলেও টাইব্রেকার নামক ভাগ্য পরীক্ষায় হেরে ভক্তদের হতাশ করেছে তারা। আর এ জন্য চটেছেন আর্জেন্টাইন কিংবদন্তীয় ফুটবলার দিয়েগো ম্যারাডোনা।

বিভিন্ন সময় বিখ্যাত সব খেলোয়াড় ও কোচদের নিয়ে বেঁফাস মন্তব্য করে খবরের শিরোনাম হয়ে থাকেন ম্যারাডোনা। তবে আর্জেন্টিনার কোপা অভিযান নিয়ে এতদিন এক প্রকার চুপই ছিলেন কিংবদন্তী এই ফুটবলার। এবার যেন সব ক্ষোভ একবারেই লিওনেল মেসির উপর ঝেরেছেন আর্জেন্টিনার ৮৬ বিশ্বকাপ জয়ের নায়ক।

সমগ্র কোপা জুড়ে মেসি গোল পেয়েছে মাত্র একটি। অথচ বার্সেলোনা থেকে দারুণ পারফরম্যান্স শেষে ট্রেবল জিতেই মহাদেশীয় এই টুর্নামেন্টে যোগ দিয়েছিলেন ছন্দের জাদুকর। তাই চার বারের ব্যালন ডি’অরজয়ী তারকার প্রতি ক্ষুব্ধ ম্যারাডোনা বলেন, ‘সময় এসেছে মেসির প্রতি বাড়াবাড়ির পরিমাণাটা একটু কমানোর।’

চিলিতে অনুষ্ঠেয় কোপায় অন্যতম ফেভারিট ছিল আর্জেন্টিনা। নিজেদের সেরাটা দিয়ে ফাইনালের মঞ্চে উঠায় তাদেরকে এক প্রকার অঘোষিত চ্যাম্পিয়ন ধরে রেখেছিল দলটির ভক্তরা। কিন্তু ফাইনালে টাইব্রেকার ভাগ্যে হেরে মাথা নিঁচু করে ফিরতে হয়েছে তাদের।

আর্জেন্টাইনদের এমন ব্যর্থতায় দলটির অধিনায়ক মেসির প্রতিই সমালোচনার তীর তাক করেন ম্যারাডোনা। আর্জেন্টাইন পত্রিকা ওলেকে দেয়া এক সাক্ষাতকারে বিশ্বকাপজয়ী এ তারকা বলেন, ‘এটি সহজেই বলা যায়, আমাদের একজন বিশ্বসেরা ফুটবলার রয়েছেন। সে রিয়াল সোসিয়েদাদের বিপক্ষে চার গোল ঠিকই করে, কিন্তু জাতীয় দলের জার্সিতে বলের নাগাল পায় না। মেসি তুমি নিজেকে নিজেই জিজ্ঞেস কর, তুমি কি আর্জেন্টাইন নাকি সুইডিশ।’

বার্সার হয়ে আর যাই করুক জাতীয় দলের হয়ে যখন নিষ্প্রভ তখন মেসিকে নিয়ে এতো বাড়াবড়িকে ভালো চোখে দেখছেন না ম্যারাডোনা। এ প্রসঙ্গে তিনি বলেন, ‘এই মেসিকে নিয়ে কেন এতো বাড়াবাড়ি? তাকে কেন অন্য চোখে দেখা হয়। এখন থেকে তাকে কম পাত্তা দেয়া শুরু করতে হবে। দলের আর পাঁচটা খেলোয়াড়ের মতো তাকে একই কাতারে রাখতে হবে। জাতীয় দলের সম্মানের জার্সিটা যখন শ্রম দিয়ে অর্জন করতে হয় তবে কেন অন্যদের মেসির চেয়ে পিছিয়ে রাখতে হবে।’



« (পূর্বের সংবাদ)