মেইন ম্যেনু

মেসি একজন অপরাধ গুরু!

বর্ণাঢ্য ক্যারিয়ারে কত খেতাব, কত উপাধিই না পেয়েছেন তিনি। অন্য গ্রহের ফুটবলার, জীবন্ত কিংবদন্তি, খুদে জাদুকর ইত্যাদি ইত্যাদি। কিন্তু তাই বলে অপরাধ গুরু! লিওনেল মেসির মতো বিনয়ী, ভদ্র, নম্র স্বভাবের ফুটবলারের জন্য এমন বিশেষণ কিছুতেই মানায় না। অথচ কর ফাঁকির মামলায় এমন বিশেষণই পেতে হলো বিশ্বসেরা ফুটবলারকে।

২০০৭ থেকে ২০০৯ সালের মধ্যে ৪৬ লাখ ডলার কর ফাঁকির অভিযোগ উঠেছে মেসির বিরুদ্ধে। বার্সেলোনা তারকার অবশ্য দাবি, এ বিষয়ে কিছুই জানেন না তিনি। কারণ আর্থিক লেনদেন সংক্রান্ত বিষয় দেখাশোনা করেন তাঁর বাবা হোর্হে। আদালতে মামলার শুনানি চলার সময় মেসির আইনজীবী র‍্যাকুয়েল আমাদোও সেই কথা জানিয়েছেন, ‘তিনি (মেসি) অর্থনৈতিক ব্যাপারে তাঁর বাবাকে বিশ্বাস করেছিলেন। সম্পত্তি দেখাশোনার বিষয়ে কিছুই জানতেন না তিনি। এ ব্যাপারে তাঁকে দেওয়া ব্যাখ্যার কোনো তথ্যপ্রমাণও নেই।’

তবে মেসির আইনজীবীর এই যুক্তি মেনে নিতে চাননি সরকার পক্ষের আইনজীবী মারিও মাজা। তিনি বলেছেন, ‘এখানে ইচ্ছেকৃত অজ্ঞতাজনিত কোনো কিছু ঘটেনি। এটা প্রতারণা ছাড়া আর কিছু নয়। কারণ তিনি (মেসি) কর দিতেই চাননি। তিনি যেন একজন অপরাধ গুরু। এটা বিশ্বাস করা কঠিন যে এমন একজন বিখ্যাত মানুষ নিজের সম্পত্তির খুঁটিনাটি বিষয়ে জানতে অনিচ্ছুক।’

আপাতত আদালতে হাজিরা দেওয়া থেকে রেহাই পেয়েছেন মেসি। শুক্রবার তিনি বার্সেলোনা থেকে ফিরে গেছেন ক্যালিফোর্নিয়ায়। সেখানেই বিশেষ কোপা আমেরিকার জন্য প্রস্তুতি নিচ্ছে আর্জেন্টিনা। বাংলাদেশ সময় আগামী মঙ্গলবার সকালে আর্জেন্টিনার প্রথম প্রতিপক্ষ চিলি।