মেইন ম্যেনু

“মেয়েটির সাথে প্রেমের অভিনয় করেছি, তাঁর দুটি সন্তানও আছে…”

নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক এক প্রবাসী ভাই জানিয়েছেন নিজের সমস্যার কথা।

আপু আমি কথাগুলো কি দিয়ে শুরু করব বুঝতে পারছিনা। যাই হোক আপু আমি দুবাইতে কর্মরত আছি দীর্ঘ ৭ বছর যাবত আর আমি এখানে একটি চাইনিজ এর দোকানে কর্মরত আছি। আর আপু আমার স্ত্রী আর সন্তান আছে আর এটাও বলতে চাই যে আলহামদুলিল্লাহ আমি আমার স্ত্রী সন্তানকে নিয়ে অনেক সুখে শান্তিতে আছি।

আপু , কথা হলো আজ এক মাস হচ্ছে একটা মেয়ের সাথে আমার পরিচয় হয় ফেসবুকে। মেয়েটার সাথে আমার প্রতিদিন ফেসবুকে চ্যাট হয়.। কয়েকদিন চ্যাট হওয়ার পরে মেয়েটা আমার মোবাইল নাম্বার চায়, আমিও দিয়ে দি। তখন আমি এতটুকু ভাবিনি যে এতবড় সমস্যা হয়ে দাঁড়াবে। এরপর থেকে মাঝেমাঝে আমাদের ভিডিও চ্যাট হতো। তখন আমাদের ভালোলাগা থেকে ভালোবাসা শুরু হয়। কিন্তু আমার ভালোবাসা ছিল অভিনয়।

আমরা সম্পর্কের গভীরে যেতে থাকি, তখন মেয়েটা আমাকে জোর দেয় দেশে এসে তাকে বিয়ে করার জন্য। মেয়েটা খুব সত্যবাদী আর আবেগী। আর মেয়েটা আমাকে এটাও বলেছে তার নাকি আগে বিয়ে হয়েছিলো এবং ২ টা বাচ্চা আছে। মেয়েটা আমাকে বিয়ে করতে চায়, আমিও মিথ্যা অভিনয়ে বিয়ে করতে রাজি হই। কারণ আপু আমি জানতাম না মেয়েটা এত সিরিয়াসলি নিবে। আমাদের সম্পর্কটা নাকি তার বাবা মা জানে। বিশ্বাস করেন আপু মেয়েটা আমাকে জোর দিচ্ছে আমি যে কোনো প্রকার দেশে এসে তাকে বিয়ে করি। জবাবে আমি তাকে এটাও বলেছি আমার পক্ষে আসা সম্ভব না কিন্তু সে কিছুতেই মানতে রাজি না। তারপরে সে বলতেছে অন্তত না হয় এক সপ্তাহ জন্য আসতে ।

কিন্তু আপু আমি তাকে সত্য কথাটা বলার জন্য ইচ্ছে করলেও বলার সাহস পাচ্ছিনা। প্লিজ আপু এই মুহুর্তে আমার কী করা সম্ভব যেটা বললে মেয়েটা আমার পথ থেকে সরে যায়। কারণ মেয়েটা আমার প্রতি এমন দুর্বল হয়ে গেছে যে যদি আমি সত্য কথাটা বলি হয়তো সে বিশ্বাস করবেনা বা হয়তো সে কোনো একটা দুর্ঘটনা করবে যার জন্য আমাকে দায়ী থাকতে হবে। কারণ আপু সে খুব আবেগী। বিশ্বাস করেন আমি এ নিয়ে এখন খুব দুশ্চিন্তায় আছি। কারণ মেয়েটার সাথে একদিন যোগাযোগ বন্ধ করলে তার পরের দিন আমাকে সারারাত সারাদিন ফোন আর মেসেজ পাঠিয়ে বিরক্ত করে। প্লিজ আপু আমি এটা থেকে মুক্তি পেতে চাই। আমাকে একটা সমাধান দিন। আর আপু আপনার মাধ্যমে সবাইকে বলে দিচ্ছি জীবনে কখনো জেনেশুনে ভুলপথে পা বাড়াবোনা।”

পরামর্শ:

দেখুন ভাই, আপনি যা করেছেন সেটি ভীষণ অন্যায় আর ঘৃণ্য একটি কাজ। আপনি কেবল সেই মেয়েটির সাথেও প্রতারণা করেন নি, নিজের স্ত্রী ও সন্তানের সাথেও প্রতারণা করেছেন। আর তাই এখন যেটা আপনি ভোগ করছেন সেটার নাম কর্মফল। আমি আপনাকে এমন কোন পরামর্শ দিতে পারবো না, যাতে কিনা মেয়েটি প্রতারিত হয়। মেয়েটির আগে একটা ডিভোর্স হয়েছে, সে নিশ্চয়ই আপনাকে নিয়ে অনেক স্বপ্ন দেখে ফেলেছে। আপনি কীভাবে পারলেন একজন মানুষের সাথে এমন জঘন্য প্রতারণা করতে? কখনো ভেবে দেখেছেন যে আপনার স্ত্রী বা পরিবার জেনে ফেললে কী হবে?

আমার কিছুই বলার নেই। শুধু এটুকু বলতে পারি না সত্যের পথে চলুন। মেয়েটির জীবনের যে ক্ষতি আপনি করে ফেলেছেন সেই দায়িত্ব আপনাকেই নিতে হবে। একটি কাজ করার আগে ভালোমত ভেবে দেখা দরকার ছিল। মেয়েটিকে সব সত্য বলে দিন। তাঁর কাছে ক্ষমা চান। বলুন যে আপনার স্ত্রী সন্তান আছে আর আপনি প্রেমের অভিনয় করেছেন। তারপর নিজের ফোন নম্বর বদলে ফেলুন। ফেসবুক থেকে মেয়েটিকে ব্লক করে দিন বা নতুন ফেসবুক আইডি খুলে নিন।প্রিয়.কম