মেইন ম্যেনু

মেয়েদের প্রতি ৮ ভুল ধারণা পোষণ করে ছেলেরা!

নারী-পুরুষের একে অপরকে দোষারোপ করাটা চিরন্তন বিষয়। আর তাতে বেশি সমালোচিত হয় নারীই। কিন্তু তার অনেকটাই অকারণে। জেনে নিন সমাজ যে ৮টি ভুল কারণে নারীদের কাঠগড়ায় তোলে।

১। নারী ছলনাময়ী
কথাটি সত্যি নয় মোটেও। ভাল-মন্দ মিশিয়েই মানুষ। সব নারী ছলনাময়ী হলে নিজের মা, বোন, কন্যাও যে ছলনাময়ী, এটা বলার সময় অনেক পুরুষই ঠিক এই কথাটা ভেবে দেখন না।

২। নারী ঝগড়ুটে
এটা কেমন কথা? পুরুষেরা কি ঝগড়া-বিবাদ-মারামারি করে না? পৃথিবীতে যত গোলমাল, যত লড়াই, তার বেশিটাই তো পুরুষের কর্ম বা কুকর্ম। তবে ঝগড়াটে হিসাবে নারীর একলার দোষ কেন?

৩। নারী সাজতে সময় নেয়
অধিকাংশ ক্ষেত্রেই নারী সুন্দর করে সাজে স্বামী বা প্রেমিকের প্রশংসা পেতে। তাহলে সাজতে সময় নেওয়া নিয়ে এত আপত্তি কেন? আবার ভাল করে না সাজলেও সমালোচনা করে পুরুষ।

৪। নারী খবরদারি করে
পুরুষের চাইতে নারীর সবদিক সামলে রাখার ক্ষমতা অনেক বেশি। খবরদারি করতে না জানলে কি সেটা আদৌ সম্ভব? নারী খবরদারি করে পুরুষের সুখের জন্য। আবার না করলেও বলা হয়, কোনও দিকেই নজর নেই।

৫। নারী পরনির্ভরশীল
একথা এখন আর বলা ঠিক নয়। তবু বলা হয়। স্বাবলম্বী নারীর সংখ্যা দিন দিন বাড়ছে। তবু শুনতে হয়, তারা পুরুষের উপরে নির্ভরশীল। স্ত্রীর উপার্জনে চলে পুরুষের সংখ্যাও কিন্তু কম নয়। আর নারীকে নির্ভরশীল বানিয়ে রাখাতেও তো অধিকাংশ পুরুষের স্বাভিমান বাড়ে। স্ত্রীয়ের রোজগার বেশি হলে আবার ইগোতে লাগে। তা ছাড়া, সংসার পরিচালনাও একটা বড় কাজ।

৬। যৌনতায় নারীর আগ্রহ কম
নারী সম্পর্কে আরেকটা ভুল ধারণা এটি। যৌনতায় আগ্রহ কেন থাকবে না? একজন সুস্থ স্বাভাবিক মানুষের মতো যে কোনও নারী পুরুষের মতোই যৌনতায় আগ্রহী। তবে প্রকাশভঙ্গিটা পুরুষের মতো নয়।

৭। নারীর খরুচে হাত
পুরুষ কি টাকা খরচ করে না? এটা খুবই স্বাভাবিক, নারীর কাছে যেটা জরুরি, সেটা পুরুষের কাছে নয়। আবার পুরুষের কাছে যেটা জরুরি, সেটা নারীর কাছে বাজে খরচ। তাই টাকা খরচ নিয়ে একচেটিয়া দোষারোপ অনুচিত।

৮) নারী সন্দেহপ্রবণ
নারীদের সম্পর্কে এটি সবথেকে মারাত্মক ভুল ধারণা। মজার বিষয় হল, নারীর তুলনায় অনেক বেশি সন্দেহ-বাতিক পুরুষের। স্বামী বা প্রেমিক অন্য কারও সঙ্গে সম্পর্কে জড়াল কিনা, তা নিয়ে একজন নারী যত চিন্তা করে, তার চেয়ে পুরুষ অনেক বেশি দুশ্চিন্তা করে একই কারণে। এমনকী, স্ত্রী বা প্রেমিকার দোষ না থাকলেও।

সব শেষে মনে রাখবেন—
নারীর সবকিছুই খারাপ, এটা মোটেই ঠিক নয়। ভালোমন্দ মিলিয়েই মানুষ। পুরুষ যেমন, নারীও তাই। নারী যেমন অনেক কিছু নিয়ে অহেতুক পুরুষকে দোষারোপ করে, পুরুষও ঠিক উল্টোটা করে। আসলে দোষের কোনও লিঙ্গ-ভেদ হয় না।