মেইন ম্যেনু

মেয়েরা পুরুষদের নির্যাতন করলে জানা যায় না কেন? সত্যিটা জানলে অবাক হবেন

আজকের নির্যাতিত নারী সমাজের জন্য অনেক সংগঠন এগিয়ে আসে। কিন্তু একবারও ভেবে দেখা হয় না পুরুষ শাসিত এই সমাজেই পুরুষও নির্যাতিত হতে পারে। ফলে ‍দিনের পর দিন তা আরও গুরুতর হচ্ছে। প্রতিদিন চুপচাপ মেনেও নিচ্ছেন অনেকে। নানা কারনে আড়লে থেকে যাচ্ছে পুরুষ নির্যতনের ঘটনা।

যেমনঃ

লোক লজ্জার ভয়ঃ

একজন পুরুষ নারী দ্বারা শারীরিক ও মানসিক ভাবে নির্যাতিত হচ্ছেন দিনের পর দিন। এই ঘটনা কোন পুরুষ নিজে মুখে বলতে খুবই লজ্জাবোধ করেন। পুরুষ ভাবেন নারীর কাছে শারীরিক ও মানসিক নির্যাতিত হওয়া আবার তা প্রকাশ পাওয়া অত্যন্ত লজ্জাজনক। শুধুমাত্র এই কারনে পুরুষ নির্যাতনের ঘটনা ধামাচাপা দেয়া হয়।

পারিবারিক সহযোগিতার অভাবঃ

পরিবারের মুরুব্বীদের সহযোগিতার অভাবে পুরুষেরা চুপচাপ অনেক কিছুই মেনে নেন। নিজের ইচ্ছার বিরুদ্ধে অনেক কিছুই করে যান সংসারে। স্ত্রীর দাম্ভিকতা সহ্য করে চলতে হয় দিনের পর দিন। ফলে পুরুষের মনে আড়ালেই রয়ে যায়।

ঝামেলায় জড়ানোর ভয়ঃ

অনেকে পুরুষই নিজের স্ত্রীর দ্বারা নির্যাতন সহ্য করে নেন ঝামেলায় জড়িয়ে যাওয়ার ভয়ে। এক্ষেত্রে কেউ যদি তার স্ত্রীর সঙ্গে সম্পর্কছেদ করতে চান, তবে নানাভাবে নির্যাতনের শিকার হতে হয় পুরুষদেরকে। একজন নারী যখন তার স্বামীর বিরুদ্ধে নির্যাতনের মামলা দায়ের করেন এবং সম্পর্কছেদ করতে চান, তখন নিয়ম অনুযায়ী সকল ব্যবস্থা নেয়া হয়। কিন্তু একজন পুরুষ তার স্ত্রীর বিরুদ্ধে মামলা দায়ের করতে চাইলে মামলা নেয়া হয় না। এভাবে পুরুষের উল্টো মামলায় জড়িয়ে যাওয়ার ঘটনাও কম নয়।..