মেইন ম্যেনু

মেয়ের হাত ধরে টানার প্রতিবাদ করায় মার খেতে হল বাবাকে

টিউশন নিয়ে বাড়ি ফেরার পথে শ্লীলতাহানির শিকার দুই ছাত্রী। ঘটনার প্রতিবাদ করাতে বেধড়ক মার খেতে হল তাদের বাবাকে। মঙ্গলবার রাতে সল্টলেকের দত্তাবাদের এই ঘটনায় এক জনকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ।

পুলিশ ও স্থানীয় সূত্রে খবর, ওই দিন রাত ন’টা নাগাদ প্রাইভেট টিউশন নিয়ে বাড়ি ফিরছিল দুই বোন। তাদের এক জন নবম এবং অন্য জন সপ্তম শ্রেণিতে পড়ে। বাড়ি থেকে মিনিট খানেক দূরে ভ্যানরিকশা থেকে নেমে তারা হেঁটে বাড়ি ফিরছিল। সেই সময় তাদের রাস্তা আটকায় কয়েক জন যুবক। ওই কিশোরীদের উদ্দেশ করে কটূক্তি করতে থাকে তারা। এর মধ্যেই বড় বোনের হাত ধরে টান দেয় বিশ্বজিত্ সরকার নামে এক যুবক। কোনও রকমে তার হাত ছাড়িয়ে দুই বোন বাড়িতে দৌড়ে গিয়ে ঘটনার কথা বলে।

সব শুনে ওই ছাত্রীদের বাবা বাইরে বেরিয়ে আসেন। তখনও সেখানে দাঁড়িয়েছিল অভিযুক্তেরা। মেয়ের নাম করে তিনি তাদের জিজ্ঞেস করেন, ‘‘ওর হাত ধরে টেনেছ কেন তোমরা?’’ জবাব আসে, ‘‘বেশ করেছি।’’ এর পরেই পেছন থেকে তাঁকে ধাক্কা মেরে ফেলে দেওয়া হয়। সঙ্গে চলে অকথ্য শব্দে গালিগালাজ এবং বেধড়ক মারধর। কোনও রকমে তাদের হাত থেকে নিজেকে ছাড়িয়ে বাড়ি ফিরে ভদ্রলোক স্থানীয় কাউন্সিলর নির্মল দত্তকে ঘটনার কথা জানান। নির্মলবাবু থানায় ফোন করে পুলিশে খবর দিলে তারা আসে। আটক করা হয় অভিযুক্ত যুবক বিশ্বজিত্‌কে। পরে তাকে গ্রেফতারও করা হয়।