মেইন ম্যেনু

মোবাইল ব্যবহারের জন্য রোজকার জীবন থেকে কী কী হারিয়ে যাচ্ছে খেয়াল করেছেন?

কিন্তু কখনও ভেবে দেখেছেন, আপনার মোবাইল ফোনটি ঠিক কোন কোন জিনিসের বিকল্প হয়ে উঠেছে। এর মধ্যে অনেক জিনিসের সঙ্গে হয়তো আপনার পুরনো স্মৃতি জড়িয়ে রয়েছে।

image (8)

১. বাড়ির ল্যান্ড ফোনটির কথা মনে আছে? অনেক ভাল, খারাপ খবর হয়তো এই ল্যান্ড ফোনটির মাধ্যেম পেয়েছিলেন। কিন্তু বাড়ির কমবেশি প্রত্যেক সদস্যের হাতেই এখন মোবাইল। ফলে, ল্যান্ডফোন অনেকের বাড়ি থেকেই বিদায় নিয়েছে। অফিস, কাছারিতে অবশ্য এখনও এর প্রয়োজনীয়তা পুরোপুরি ফুরিয়ে যায়নি।

image (7)

২. ঘড়ি ব্যবহার করা অনেকের শখ, অনেকের হাতঘড়ি ছাড়া চলে না। কিন্তু শুধু সময় দেখার জন্য কি আর এখন সত্যিই ঘড়ির প্রয়োজন আছে? সময় দেখার প্রয়োজনীয়তাও তো মোবাইল মিটিয়েছে।

image (6)

৩. আগে অবধারিতভাবে মহিলাদের ব্যাগে থাকতই এই ধরনের ছোট আয়না। এখন স্মার্ট ফোনের স্ক্রিনে নিজের মুখ দেখে নিয়েই অনেকে সেই কাজ সারেন। আর না হলে ফ্রন্ট ক্যামেরাটা অন করে নিজের মুখটা দেখে নিলেই হল!

image (5)

৪. বাড়ির কাছে বা রাস্তায় দাঁড়িয়ে হাপিত্যেশ করে ট্যাক্সির অপেক্ষা। তারপরে ট্যাক্সিচালকদের হাজার রকমের বায়না আর অজুহাত। এই সব কিছুর থেকে মুক্তি দিয়েছে ওলা, উবেরের মতো অন ডিম্যান্ড ক্যাব। কোনওরকম ঝঞ্ঝাট এড়িয়ে এই ট্যাক্সি বুকিংয়ের মাধ্যমও সেই মোবাইলই। কলকাতা-সহ দেশের অন্য প্রান্তেও প্রচলিত ট্যাক্সি পরিষেবা আজ অস্তিত্ব সংকটে।

image (9)

৫. মোবাইলেই লোড করা থাকছে কয়েকশো গান। বাড়তি পয়সা খরচ করে ওয়াকম্যান, আইপডের ব্যবহারের প্রয়োজনীয়তা তাই অনেকেই অনুভব করেন না। আর এখন তো নানারকমের মিউজিক ফোনও বেরিয়ে গিয়েছে।

image (10)

৬. বাইরে বেড়াতে গেলে অনেকে হয়তো ছোট্ট ডিজিটাল ক্যামেরাটা নিয়ে যান। কিন্তু মোবাইল ক্যামেরাই তো ক্যামেরার প্রয়োজন মিটিয়ে দিচ্ছে। ব্যবহারও সহজ। আর হাজার দশেক টাকার মোবাইলেই এখন যে ধরনের উন্নত ক্যামেরা থাকছে, তার ছবি অনেক ক্ষেত্রেই সাধারণ ডিজিটাল ক্যামেরার থেকেও ঝকঝকে।