মেইন ম্যেনু

মোশাররফ করিমের নায়িকা কলকাতার পাখি

কলকাতার স্টার জলসার তুমুল জনপ্রিয় ‘বোঝেনা সে বোঝেনা’ সিরিয়ালে পাখি চরিত্রে অভিনয় করে নিজের বাবা-মায়ের দেয়া নামটাই হারিয়ে বসেছেন তিনি। এটাকেই বোধহয় অভিনয়ের সাফল্য বলে। বলছি কলকাতার জনপ্রিয় অভিনেত্রী মধুমিতা সরকারের কথা। দুই বাংলায় যার পরিচিতি পাখি নামেই।

জনপ্রিয়তায় মধুমিতা দুই বাংলা মাতিয়েছেন। তার পাখি চরিত্রটির নামে পোশাক পর্যন্ত বাজারে বেরিয়েছে। সেই পোশাক কিনতে না পেয়ে দুই বাংলাতেই আত্মহত্যার খবর পাওয়া গেছে। এমন জনপ্রিয় অভিনেত্রীকে নিয়ে অনেক আগে থেকেই বাংলাদেশের নির্মাতারা নানা ভাবনা ভাবছেন। একথাও শোনা গিয়েছিলো শাকিব খানের বিপরীতে ঢাকাই ছবিতে অভিষেক হচ্ছে মধুমিতার।

তবে শেষ পর্যন্ত তা গুজবই রয়ে গেল। কিন্তু এদেশের বড় পর্দায় না হলেও ছোট পর্দায় ঠিকই অভিষেক হচ্ছে পাখির। আর অভিষেকেই তিনি বিপরীতে পাচ্ছেন টেলিভিশনের সবচেয়ে জনপ্রিয় তারকা মোশাররফ করিমকে।

জানা গেছে, সম্প্রতি ‘মেঘবালিকা’ নামের একটি টেলিছবিতে মোশাররফের বিপরীতে কাজ করেছেন মধুমিতা। টেলিছবিটি রচনা করেছেন মহিউদ্দীন আহমেদ এবং পরিচালনা করছেন পারভেজ আমিন। ভারতের মানালিতে সম্প্রতি টেলিছবিটির নির্মাণ কাজ শেষ হয়েছে।

মোশাররফ করিমের সঙ্গে অভিনয়ের প্রসঙ্গে মধুমিতা ওরফে পাখি ফেসবুকে জানান, ‘মানুষের ভালোবাসাই এক জীবনে সাফল্যের সবচেয়ে বড় কথা। সেদিক থেকে আমিও সৌভাগ্যবান। নিজ দেশের পাশাপাশি বাংলাদেশের মানুষের অকৃত্রিম ভালোবাসা পেয়েছি। বেশ কয়েকবার বাংলাদেশে অভিনয়ের প্রস্তাব পেয়েছি। কিন্তু সময়ের অভাবে কাজ করা হয়ে উঠেনি। অবশ্য ওপারের একটি তেলের বিজ্ঞাপনে কাজ করেছিলাম। তবে এই প্রথমবার আমি বাংলাদেশি কোনো ফিকশনে হাজির হচ্ছি খুব ভালো লাগছে। বলা যায়, টেনশানেও আছি। কাজটি দর্শক কীভাবে গ্রহণ করবেন এই ভেবে।’

তিনি আরো বলেন, ‘মোশাররফ করিম ওপারের জনপ্রিয় একজন অভিনেতা। উনার নাটক বেশ আনন্দ দেয়। একজন সাবলীল অভিনেতা তিনি। উনার ‘টেলিভিশন’ ও ‘জালালের গল্প’ ছবিটি আমি দেখেছি। একটু ভয়ে ছিলাম এত বড় মাপের অভিনেতার সঙ্গে কাজ করা নিয়ে। কিন্তু তিনি খুব সদালাপী আর সহযোগী। দারুণ উপভোগ করেই টেলিফিল্মের কাজটি করেছি।’

এদিকে এই টেলিছবিতে মোশাররফ করিম ও পাখি ছাড়াও আরো অভিনয় করেছেন রাশেদ শাওন ও রাশা।

এটি আসছে কোরবানী ঈদে একটি বেসরকারি টেলিভিশন চ্যানেলে প্রচার হবে।