মেইন ম্যেনু

‘যতদ্রুত সম্ভব খুলে দেয়া হবে ব্রিটিশ কাউন্সিল’

ব্রিটিশ কাউন্সিলের কার্যক্রম যতদ্রুত সম্ভব খুলে দেয়া হবে বলে জানিয়েছেন ঢাকায় নিযুক্ত ব্রিটিশ হাইকমিশনার এলিসন ব্লেইক।

রোববার সচিবালয়ে স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী আসাদুজ্জামান খান কামালের সঙ্গে সাক্ষাত শেষে সাংবাদিকদের এ কথা জানান তিনি।

তিনি বলেন, শুধু বিদেশি নয়, বাংলাদেশিদেরও নিরাপত্তা নিশ্চিত করতে যুক্তরাজ্য-বাংলাদেশ একসঙ্গে কাজ করবে।

এলিসন ব্লেইকের এমন কথার প্রেক্ষিতে স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী আসাদুজ্জামান খান কামাল বলেন, ‘আপাতত গোয়েন্দা তথ্য দিয়ে সহযোগিতা করুন।’

ব্রিটিশ হাইকমিশনারের সঙ্গে সাক্ষাত শেষে স্বরাষ্ট্রমন্ত্রীও সাংবাদিকদের সঙ্গে কথা বলেন।

তিনি জানান, সন্ত্রাস ও জঙ্গি মোকাবেলায় বাংলাদেশ সরকারের নেয়া পদক্ষেপগুলো জানতে চেয়েছে যুক্তরাজ্য। মন্ত্রণালয়ের পক্ষ থেকে আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর কাজগুলো তাদের সামনে তুলে ধরা হয়েছে। আমরা বলেছি, ‘আপাতত গোয়েন্দা তথ্য দিয়ে সহযোগিতা করুন।’

ব্রিটিশ কাউন্সিল বন্ধের বিষয়ে সাংবাদিকদের এক প্রশ্নের জবাবে স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী বলেন, অবকাঠামোগত সমস্যার কারণেই ব্রিটিশ কাউন্সিল নিজেই অফিস বন্ধ করেছে। তবে এতে শিক্ষার্থীদের ক্লাসের কিছু সমস্যা হলেও পরীক্ষার কোনো সমস্যা হবে না।

উল্লেখ্য, নিরাপত্তার কারণে গত ২৭ জুলাই বাংলাদেশে সাময়িকভাবে সব অফিস বন্ধ ঘোষণা করে ব্রিটিশ কাউন্সিল।

বর্তমানে ঢাকায় দুটিসহ দেশে ব্রিটিশ কাউন্সিলের চারটি অফিস রয়েছে।