মেইন ম্যেনু

যশোরে গণপিটুনিতে এমএম কলেজের শিক্ষার্থী নিহত : আহত ২ জন

গণপিটুনিতে আজ সোমবার সন্ধ্যায় যশোর সরকারি এম এম কলেজের অর্থনীতি বিভাগের শিক্ষার্থী হাবিবুল্লাহ (২২) নিহত হয়েছেন আহত হযেছেন আরো দুই শিক্ষার্থী।নিহত হাবিবুল্লাহ শার্শা উপজেলার তেবাড়িয়া গ্রামের নিয়ামত আলীর ছেলে।

আহতরা হলেন, বাঘারপাড়া উপজেলার ছোট খুদরা গ্রামের মোহাম্মদ আলীর ছেলে কামরুল হাসান (২২) ও মাগুরার শালিখা উপজেলার আতিয়ার রহমানের ছেলে আল-মামুন (২২)। এরা সবাই যশোর সরকারি এম এম কলেজের অর্থনীতি বিভাগের ছাত্র।

যশোর কোতোয়ালি মডেল থানা পুলিশের ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা সিকদার আককাস আলী জানান, সন্ধ্যার দিকে যশোর এম এম কলেজ এলাকার একটি ছাত্রাবাসে শিবির কর্মীরা গোপন বৈঠক করছে এমন খবর পেয়ে ছাত্রলীগ কর্মীরা তাদের ডেকে জিজ্ঞাসাবাদ করার সময় স্থানীয় কিছু শিক্ষার্থী তাদের গণপিটুনি দেয়। খবর পেয়ে পুলিশ তিনজনকে আহত অবস্থায় উদ্ধার করে যশোর মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করার পর রাত ৭ টায় আহতদের মধ্যে হাবিবুল্লাহ মারা যায়। এর আগে তাদের ছাত্রবাসের পেছন থেকে একটি হাতবোমা ও বেশকিছু জিহাদি বই উদ্ধার করা হয় বলে ওসি জানান।

আহত শিবির কর্মী আল-মামুন দাবি করেন, ছাত্রলীগ কর্মীরা তাদের ছাত্রাবাসে হামলা চালিয়ে বেধড়ক মারপিট করায় নিহতের ঘটনা ঘটেছে।

যশোর জেলা ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদক আনোয়ার হোসেন বিপুল জানান, এ ঘটনার সঙ্গে ছাত্রলীগ কর্মীদের কোনো সম্পৃক্ততা নেই। শিবির কর্মীদের গোপন বৈঠকের খবর পেয়ে সাধারণ শিক্ষার্থীরাই তাদের মারপিট করেছে।