মেইন ম্যেনু

যশোরে গুলিতে আওয়ামী লীগ কর্মী খুন

যশোর সদর উপজেলার খিতিবদিয়ায় এজাজ আহমেদ (৪০) নামের এক আওয়ামী লীগ কর্মীকে গুলি করে হত্যা করেছে দুর্বৃত্তরা।

আজ সোমবার সকাল ৮টার দিকে বাড়ি ফেরার পথে এ ঘটনা ঘটে। যশোর জেনারেল হাসপাতালে এজাজের মরদেহ নেওয়া হয়েছে। কর্তব্যরত চিকিৎসক বলেছেন, তাঁর মাথায় গুলি লেগে মৃত্যু হয়েছে।

নিহত এজাজের বাড়ি চূড়ামণকাটি ইউনিয়নের ঝাউদিয়া গ্রামে। এই ইউনিয়নের চেয়ারম্যান আবদুল মান্নান মুন্না বলেছেন, এজাজ আওয়ামী লীগের একনিষ্ঠ কর্মী ছিলেন।

এর আগে ২০১৪ সালের ১৮ নভেম্বর এজাজের ভাই আওয়ামী লীগ কর্মী শহিদুল ইসলামকেও দুর্বৃত্তরা কুপিয়ে হত্যা করে ছিল।

নিহতের স্বজনরা জানান, এজাজ আজ সকাল সোয়া ৮টার দিকে মোটরসাইকেলযোগে যশোর শহর থেকে বাড়ি ফিরছিলেন। পথে খিতিবদিয়া পুকুরপাড়ে বিপরীত দিক থেকে আসা দুটি মোটরসাইকেলে পাঁচ/ছয়জন হেলমেট পরা ব্যক্তি তাঁর গতিরোধ করে এবং এজাজকে লক্ষ্য করে গুলি করে পালিয়ে যায়। পরে স্থানীয়রা তাঁকে উদ্ধার করে যশোর জেনারেল হাসপাতালে নিয়ে গেলে কর্তব্যরত ডাক্তাররা তাঁকে মৃত ঘোষণা করেন।

যশোর কোতোয়ালি থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) ইলিয়াস হোসেন বলেন, হত্যাকাণ্ডের খবর পেয়ে ঘটনাস্থলে পুলিশ পাঠানো হয়েছে। কী কারণে হত্যাকাণ্ড সংঘঠিত হয়েছে, তা পরে জানা যাবে।

এদিকে, সদর উপজেলার জামতলা ও চূড়ামণকাটির চৌগাছা রেলক্রসিংয়ের কাছ থেকে সকালে ট্রেনে কাটা দুই যুবকের লাশ উদ্ধার করেছে রেলওয়ে পুলিশ। তাঁদের পরিচয় নিশ্চিত হওয়া যায়নি।