মেইন ম্যেনু

যশোরে প্রথমবারের মতো ২ নারী চেয়ারম্যান

যশোর সদরের ১৫টি ইউনিয়নের মধ্যে এই প্রথমবারের মতো দুই নারী চেয়ারম্যান নির্বাচিত হয়েছেন। নওয়াপাড়া ইউনিয়নে নাসরিন সুলতানা খুশি ও রামনগর ইউনিয়নে নাজনীন নাহারকে বেসরকারিভাবে নির্বাচিত ঘোষণা করা হয়েছে। তারা দুই জনই নৌকা প্রতীক নিয়ে ভোটযুদ্ধে অংশ নিয়েছিলেন।

জেলা নির্বাচন অফিস সূত্র জানায়, সদর উপজেলার ১৫ ইউনিয়নের মধ্যে দেয়াড়া, আরবপুর ও নরেন্দ্রপুর এই তিনটিতে বিনাপ্রতিদ্বন্দ্বীতায় নৌকা প্রতীকের প্রার্থীরা চেয়ারম্যান নির্বাচিত হন। অন্য ১২টির মধ্যে আওয়ামী লীগ ১০টি ও একটিতে বিএনপির চেয়ারম্যান নির্বাচিত হয়েছেন। একটি (চাঁচড়া) ইউনিয়নের ফলাফল স্থগিত রয়েছে।

রিটার্নিং অফিসারের কার্যালয় সূত্র জানায়, নওয়াপাড়া ইউনিয়নে আওয়ামী লীগের মনোনীত প্রার্থী নাসরিন সুলতানা ১৭ হাজার ৫৮৯ ভোট পেয়ে বিজয়ী হয়েছেন। তার একমাত্র প্রতিদ্বন্দ্বী বিএনপির মনোনীত প্রার্থী আলতাফ হোসেন ধানের শীষ প্রতীকে পেয়েছেন ৫ হাজার ৯২২ভোট।

রামনগর ইউনিয়নে নৌকা প্রতীকের প্রার্থী নাজনীন নাহার ১১ হাজার ১৬৯ ভোট পেয়ে নির্বাচিত হয়েছেন। তার প্রতিদ্বন্দ্বী বিএনপির প্রার্থী মাছুদুর রহমান শামিম ৫ হাজার ১৫৮ ভোট পেয়েছেন।

এছাড়াও হৈবতপুর ইউনিয়নে আওয়ামী লীগের সিরাজুল ইসলাম, লেবুতলা ইউনিয়নে আওয়ামী লীগের আলিমুজ্জামান, ইছালী ইউনিয়নে আওয়ামী লীগের এসএম আফজাল হোসেন, উপশহর ইউনিয়নে আওয়ামী লীগের এহসানুর রহমান লিটু, কাশিমপুর ইউনিয়নে আওয়ামী লীগের মশিয়ার রহমান সাগর, চুড়ামনকাটি ইউনিয়নে আওয়ামী লীগের আব্দুল মান্নান মুন্না, ফতেপুর ইউনিয়নে বিএনপির মনোনীত প্রার্থী রবিউল ইসলাম, কচুয়া ইউনিয়নে আওয়ামী লীগের লুৎফর রহমান ধাপক, বসুন্দিয়া ইউনিয়নে আওয়ামী লীগের মনোনীত প্রার্থী রিয়াজুল ইসলাম খান রাসেল চেয়ারম্যান নির্বাচিত হয়েছেন। আর চাঁচড়া ইউনিয়নের তিনটি কেন্দ্রে গোলযোগের কারণে ভোট গ্রহণ বন্ধ করে দেয়ায় সেখানে ফলাফল স্থগিত রেখেছেন রিটার্নিং অফিসার।