মেইন ম্যেনু

যানজটে রাজধানী স্থবির, আটকা সমাবেশের গাড়িও

আজ সোমবার সকাল থেকে যানজটের কবলে পড়ে রাজধানীবাসী। সময় যত গড়িয়েছে, যানজটের তীব্রতা তত বেড়েছে। ঘণ্টার পর ঘণ্টা একই জায়গায় স্থির দাঁড়িয়ে বাস, মিনিবাস, মাইক্রোবাস, প্রাইভেট কার, পিকআপসহ নানা গাড়ি।

এই অসহনীয় যানজটের কারণ কী? ট্রাফিক বিভাগ সূত্রে পাওয়া তথ্য, সকালে সচিবালয়ে মন্ত্রিসভার বৈঠক থাকায় ভিভিআইপিদের যাতায়াত ছিল সকালের যানজটের কারণ, আর এর সঙ্গে পরপরই যোগ হয় সোহরাওয়ার্দী উদ্যানে আওয়ামী লীগের সমাবেশে আসা গাড়ির চাপ। রাজধানীসহ আশপাশের জেলা থেকে এসেছেন আওয়ামী লীগের নেতাকর্মীরা। ফলে ভয়াবহ যানজটের মুখে পড়ে রাজধানীর রাস্তাগুলো।

যানজটের তীব্রতা এতটাই জটিল ছিল, সোহরাওয়ার্দীর সমাবেশে আসা বহু গাড়ি বিভিন্ন স্থানে আটকা পড়ে থাকে ঘণ্টার পর ঘন্টা। তাদের অনেকে গাড়ি নিয়ে সমাবেশে যেতে পারেননি।

রাজধানীর ফার্মগেট, মগবাজার, রাসেল স্কোয়ার, মহাখালী, বনানী, তেজগাঁও সাতরাস্তা, বাংলামোটরসহ বিভিন্ন সড়ক ঘুরে দেখা যায়, যত দূর চোখ যায় স্থবির গাড়ি আর গাড়ি। অতীষ্ঠ যাত্রীরা বাস থেকে নেমে ফুটপাত ধরে গন্তব্যের দিকে হেঁটে যান।

বিমানবন্দরের কাছের এলাকা আশকোনার খায়রুল ইসলাম যাচ্ছিলেন হাইকোর্ট। বনানী ফ্লাইওভার থেকে যানজটের ধকল সইয়ে কাকলি পর‌্যন্ত পৌঁছাতে তার লেগেছে এক ঘণ্টা। কাকলি থেকে আরেক দফা যানজট পেরিয়ে মহাখালী ফ্লাইওভারে পৌঁছান আধাঘণ্টায়। ফ্লাইওভারে উঠে সেই যে আটকা পড়েন, গাড়ি আর নড়ে না।

খায়রুল এই প্রতিবেদককে বলেন, অগত্যা ফ্লাইওভারে বাস থেকে নেমে বনানীর ঢালে ফিরে যান মহাখালী হয়ে তেজগাঁওয়ের রাস্তা ধরে যাবেন বলে। কিন্তু নিস্তার মেলেনি। বলাকা বাসে মহাখালী পেরিয়ে সেই যানজটের মুখেই পড়েন। মহাখালী বাস টার্মিনাল, নাবিস্কো আর তেজগাঁও-র‌্যাংসভবন সংযোগ সড়কের সিগনালের যানজট পেরিয়ে তার বাসটি আবার নিশ্চল হয়ে পড়ে। মিনিট দশেক অপেক্ষা করে আবার বাস থেকে নেমে পড়েন। এরপর আরো বহু মানুষের সঙ্গে হেটে মগবাজার পার হন তিনি।

যানজটে নাকাল আরো অনেকের একই ধরনের অভিজ্ঞতার কথা জানিয়েছেন আমাদের প্রতিনিধিরা।

এই যানজটে আটকে আছে সমাবেশের অনেক গাড়ি। দোতলা বিআরটিসি বাস থেকে শুরু করে মিনিবাস এমনকি অনেক স্থানীয় নেতার ব্যক্তিগত গাড়িও আটকা পড়েছে ফ্লাইওভারে। আটকে পড়া নেতাকর্মীদের সমাবেশে যাওয়ার তাড়ার চেয়ে বাসে বসে কিংবা নেমে ফ্লাইওভারে হইহুল্লোড় করতে দেখা যায়। কেউ কেউ হেঁটে রওনা দেয়ার তাড়া দিলেও তাতে খুব একটা গা করেনি কেউ।

মোরশেদ আলম জানান, ফ্লাইওভারের ওপর থেকে উত্তরে দৃষ্টি ফেললে কাকলি ছাড়িয়ে যানজটের বিস্তার দেখা যায়। ওদিকে পশ্চিম দিকে কোথায় সেটা তো অনুমেয়ই।

এদিকে ফার্মগেট থেকে আমাদের প্রতিনিধি জানান, কারওয়ান বাজার, খামারবাড়ি, বিজয়সরণি নিয়ে ফার্মগেটের সন্নিহিত এলাকাগুলো ছিল যানজটে স্থবির। একই অবস্থা পান্থপথ, বাংলামোটর, মগবাজারেও।

পুলিশের ট্রাফিক বিভাগ সূত্রে জানা গেছে, আজ সকালে সচিবালয়ে মন্ত্রিসভার বৈঠক থাকায় ভিভিআইপিদের যাতায়াতের কারণে কিছু এলাকায় যানজটের সৃষ্টি হয়। এ ছাড়া দুপুরের আগ থেকেই বিভিন্ন এলাকায় থেকে সোহরাওয়ার্দী উদ্যান অভিমুখী আওয়ামী লীগ ও সহযোগী সংগঠনগুলোর মিছিলের কারণে যানজটের তীব্রতা বেড়েছে।

প্রসঙ্গত, বঙ্গবন্ধুর স্বদেশ প্রত্যাবর্তন দিবস উপলক্ষে আজ রাজধানীর সোহরাওয়ার্দী উদ্যানে জনসভা করে সরকারি দল আওয়ামী লীগ। এই জনসভা গতকাল রবিবার করার কথা থাকলেও বিশ্ব ইজতেমার মোনাজাতের কারণে গতকাল তা হয়নি। জনসভায় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা সভাপতিত্ব করেন।-ঢাকাটাইমস