মেইন ম্যেনু

যুদ্ধাপরাধ বিচার বাধাগ্রস্ত করতেই গুপ্ত হত্যা : নাসিম

যুদ্ধাপরাধের বিচার বাধাগ্রস্ত করতে পরিকল্পিতভাবে গুপ্ত হত্যা করা হচ্ছে। দেশে অস্থিতিশীল পরিস্থিতি সৃষ্টি করে অসাংবিধানিকভাবে ক্ষমতা দখলের জন্য এ চক্রান্ত চলছে।

শুক্রবার রাজধানীর ধানমন্ডির আওয়ামী লীগ সভানেত্রীর কার্যালয়ে ১৪ দলের বৈঠক শেষে এক সংক্ষিপ্ত সংবাদ সম্মেলনে ১৪ দলের মুখপাত্র স্বাস্থ্যমন্ত্রী মোহাম্মদ নাসিম এ কথা বলেন।

তিনি বলেন, ৫ জানুয়ারি নির্বাচনে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করতে ব্যর্থ হয়েছিলো বিএনিপি- জামায়াত জোট। আজ যখন দেশে স্থিতিশীল পরিস্থিতি বিরাজ করছে শেখ হাসিনার নেতৃত্বে জাতীয় ও আন্তর্জাতিকভাবে বাংলাদেশ যখন এগিয়ে যাচ্ছে তখনই চক্রান্ত শুরু হয়েছে। ধারাবিহকভাবে একই ধরণের কয়েকটি ঘটনা যার উদ্দেশ্য জনমনে ভীতি সৃষ্টি, সরকারকে বিব্রত, বিপর্যস্ত এবং একটি অস্থিতিশীল পরিস্থিতি সৃষ্ট করে অসাংবিধানিকভাবে ক্ষমতা দখল করা।

তিনি আরো বলেন, নৈরাজ্য করতে যারা ব্যর্থ হয়েছে, তারাই গুপ্ত হত্যার মাধ্যমে একাত্তরের ঘাতকদের বিচার বন্ধ করতে চায়। ১৪ দল অতীতের মতো এবারও মাঠে থেকে এ ষড়যন্ত্র মোকাবিলা করবে।

হত্যা-খুনের প্রতিবাদে আগামী ৮ মে শহীদ মিনারে এবং ১৪ মে রাজশাহীতে জনসভা করা হবে বৈঠকে এমন সিদ্ধান্ত নেয়া হয়েছে বলে জানান ১৪ দলের দপ্তর বিষয়ক সমন্বয়ক মৃণাল কান্তি দাস।

বৈঠকে উপস্থিত ছিলেন আওয়ামী লীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক মাহবুব-উল আলম হানিফ, জাহাঙ্গীর কবীর নানক, জাসাদের একাংশের সভাপতি শরীফ নুরুল আম্বিয়া, সাধারণ সম্পাদক নাজমুল হক প্রধান, জাসদ (ইনু) সাধারণ সম্পাদক শিরীন আখতার, সাম্যবাদী দলের সাধারণ সম্পাদক দিলীপ বড়ুয়া, বাসদ আহ্বায়ক রেজাউর রশিদ খান প্রমুখ।