মেইন ম্যেনু

যুদ্ধাহতরা পাবেন ৩০ হাজার টাকা মাসিক সম্মানী

মুক্তিযুদ্ধ বিষয়ক মন্ত্রী আ. ক. ম. মোজাম্মেল হক বলেছেন, চলতি বছরেই খেতাবপ্রাপ্ত মুক্তিযোদ্ধাদের ভাতা কয়েকগুন বৃদ্ধির উদ্যোগ নিয়েছে সরকার। একইসঙ্গে বিভিন্ন শ্রেণীর যুদ্ধাহত মুক্তিযোদ্ধা, মৃত যুদ্ধাহত মুক্তিযোদ্ধা ও শহীদ পরিবারের মাসিক রাষ্ট্রীয় ভাতাও বাড়ানো হবে।

আগামী জুন মাস থেকেই বর্ধিত হারে ভাতা দেয়ার পরিকল্পনা রয়েছে।সোমবার জাতীয় সংসদে প্রশ্নোত্তর পর্বে সংরক্ষিত মহিলা আসনের সদস্য নুর-ই-হাসনা লিলি চৌধুরীর এ সংক্রান্ত লিখিত প্রশ্নের জবাবে
মন্ত্রী বলেন, বর্তমান সরকার সাধারন মুক্তিযোদ্ধা, খেতাবপ্রাপ্ত মুক্তিযোদ্ধা, শহীদ মুক্তিযোদ্ধা এবং যুদ্ধাহত মুক্তিযোদ্ধাদের কল্যানে বিভিন্ন পদক্ষেপ গ্রহণ করেছে। এরমধ্যে সম্মানী ভাতা বৃদ্ধির বিষয়টি অন্যতম।

তিনি জানান, সাধারন মুক্তিযোদ্ধাদের ভাতা বাড়িয়ে ১০ হাজার টাকায় উন্নীত করা, যুদ্ধাহত মুক্তিযোদ্ধা, মৃত যুদ্ধাহত মুক্তিযোদ্ধা ও শহীদ পরিবারের মাসিক ভাতা ৩০ হাজার টাকায় উন্নীত করার বিষয়টি সরকারের সক্রিয় বিবেচনাধীন রয়েছে।

আগামী জুন মাস থেকেই বর্ধিত হারে ভাতা দেয়া হতে পারে বলেও জানান মন্ত্রী।
সংরক্ষিত মহিলা আসনের সদস্য কাজী রোজীর লিখিত প্রশ্নের জবাবে মুক্তিযুদ্ধ বিষয়ক মন্ত্রী জানান, মুক্তিযুদ্ধকালীন সময়ে স্বাধীন বাংলা বেতার কেন্দ্রের ভূমিকা অবিস্মরণীয় থাকলেও প্রতিষ্ঠানটির সে সময়কার শব্দসৈনিক, যন্ত্রসৈনিক ও কলাকুশলীদের সঠিক কোনো পরিসংখ্যান মন্ত্রণালয়ে নেই। তবে এই বেতার কেন্দ্রের ৮৭ জন শিল্পীর একটি গেজেট মন্ত্রণালয়ে সংরক্ষিত আছে।

মন্ত্রী জানান, মুক্তিযুদ্ধে সব অংশগ্রহণকারী বীর সৈনিক এবং দেমের স্বাধীনতার স্বপক্ষ শক্তিকে উজ্জীবিত হওয়ার অনুপ্রেরণা যুগিয়েছিল স্বাধীন বাংলা বেতার কেন্দ্র। মুক্তিযুদ্ধে অগ্রণী ভূমিকা পালণকারী প্রতিষ্ঠানটির বিভিন্ন ক্যাটাগরির সৈনিকদের বিশেষ অবদানের কথা জাতি শ্রদ্ধার সঙ্গে স্মরণ করে।