মেইন ম্যেনু

যেখানে বাধা সেখানে নতুন তফসিল চায় বিএনপি

আসন্ন পৌর নির্বাচনে মনোনয়নপত্র জমা দিতে গিয়ে যেসব এলাকায় বিএনপির প্রার্থীরা বাধার সম্মুখীন হয়েছেন সেসব এলাকায় নতুন তফসিল ঘোষণার দাবি জানিয়েছে দলটি। এরআগে পুরো নির্বাচনই ১৫ দিন পিছিয়ে দেয়ার দাবি জানিয়েছিল বিএনপি। ওই দাবির বিষয়ে নির্বাচন কমিশন আলাপ-আলোচনা করে দেখে, নির্বাচন একদিনও পেছানো সম্ভব না।

মনোনয়নপত্র জমা দিতে গিয়ে বাধার মুখোমুখি হওয়ার পাশাপাশি যেসব এলাকায় আচরণবিধি লঙ্ঘনের ঘটনা ঘটেছে এবং দায়িত্বপ্রাপ্ত রিটার্নিং কর্মকর্তারা তাৎক্ষণিক ব্যবস্থা নেননি সেসব রিটার্নিং কর্মকর্তাদের প্রত্যাহারের দাবিও জানিয়েছে বিএনপি।

শুক্রবার বিকেলে নয়াপল্টনে বিএনপির কেন্দ্রীয় কার্যালয়ে এক সংবাদ সম্মেলন করে এসব দাবি জানান বিএনপির মুখপাত্রের দায়িত্বে থাকা দলটির আন্তর্জাতিক বিষয়ক সম্পাদক ড. আসাদুজ্জামান রিপন।

মনোনয়পত্র জমা দিতে গিয়ে বাধার মুখে পড়ার যে অভিযোগ উঠেছে তা কিছুটা সত্য বলে গতকালই স্বীকার করে নিয়েছেন নির্বাচন কমিশনার মো. শাহ নেওয়াজ। তবে ওই অভিযোগ পুরোটা সত্য নয় বলেও দাবি তার।

নির্বাচন কমিশন এবং সরকারের সমালোচনা করে রিপন বলেন, কমিশন যেভাবে নিত্যনতুন সংশোধনী দিচ্ছে তাতে নির্বাচন প্রক্রিয়া কঠিন হচ্ছে এবং কষ্টসাধ্য হচ্ছে। এটা প্রত্যাশিত না।

বর্তমানে অবাধ ও সুষ্ঠু নির্বাচনের পরিবেশ অনুপস্থিত দাবি করে রিপন আরো বলেন, তফসিল ঘোষণার আগে বিএনপির কিছু পর্যবেক্ষণ ছিল সেগুলো আমলে নিলে অবাধ ও সুষ্ঠু নির্বাচনের পরিবেশ তৈরি করা যেত। কিন্তু নির্বাচন কমিশন সেসব আমলে নেয়নি।

নির্বাচন কমিশন ঘোষিত তফসিল অনুযায়ী আগামী ৩০ ডিসেম্বর অনুষ্ঠিত হতে যাচ্ছে ২৩৫টি পৌরসভার নির্বাচন। এবারই প্রথম দলের প্রতীক নিয়ে মেয়র পদে লড়বেন প্রার্থীরা।