মেইন ম্যেনু

যেখানে স্পেনই প্রথম…

ইউরোপ সেরা ক্লাবগুলোর প্রতিযোগিতার নাম উয়েফা চ্যাম্পিয়নস লিগ। গ্রুপপর্বে সমগ্র ইউরোপের ৩২টি ক্লাব সুযোগ পায় মর্যাদাপূর্ণ এই টুর্নামেন্টে খেলার। অবাক করা হলেও সত্য এই ৩২টি দলের ৫টিই স্পেনের ক্লাব। যা চ্যাম্পিয়নস লিগের ইতিহাসে নতুন রেকর্ড। এর আগে কখনো একটি দেশের পাঁচটি ক্লাব চ্যাম্পিয়নস লিগের মূলপর্বে খেলার সুযোগ পায়নি।

মঙ্গলবার রাতে মোনাকোকে দুই লেগ মিলিয়ে ৪-৩ গোলে হারিয়ে চ্যাম্পিয়নস লিগের মূলপর্বের টিকিট পেয়েছে ভ্যালেন্সিয়া। তার আগে মূলপর্ব নিশ্চিত করেছে বার্সেলোনা, রিয়াল মাদ্রিদ ও অ্যাটলেটিকো মাদ্রিদ। আর উয়েফা ইউরোপা লিগের শিরোপা জেতায় চ্যাম্পিয়নস লিগে খেলার সুযোগ পেয়েছে আরেক স্প্যানিশ ক্লাব সেভিয়াও। বাছাইপর্বের বাঁধা টপকে তাদের সঙ্গে যুক্ত হয়েছে ভ্যালেন্সিয়াও। আর তাতে সৃষ্টি হয়েছে নতুন এক নজির। উয়েফা চ্যাম্পিয়নস লিগের ইতিহাসে স্পেনই প্রথম কোনো দেশ, যে দেশের পাঁচটি ক্লাব মূলপর্বে খেলতে যাচ্ছে।

বুধবার দ্বিতীয় লেগে ফ্রান্সের ক্লাব মোনাকোর কাছে ২-১ গোলে হার মানে স্পেনের ক্লাব ভ্যালেন্সিয়া। কিন্তু আগের লেগে ৩-১ ব্যবধানে জয় পাওয়ায় দুই লেগ মিলিয়ে ৪-৩ গোলে জয় নিশ্চিত হয় ভ্যালেন্সিয়ার। স্প্যানিশ ক্লাবটির হয়ে মূল্যবান অ্যাওয়ে গোলটি করেন ম্যানচেস্টার সিটির প্রাক্তন স্ট্রাইকার আলভারো নেগ্রেদো।

আরো একটি অবাক করা বিষয় হল- উয়েফা চ্যাম্পিয়নস লিগের সর্বশেষ সাতটি আসরের চারটি শিরোপাই জিতেছে স্পেনের ক্লাবগুলো। গেল মৌসুমে জুভেন্টাসকে হারিয়ে ট্রেবল শিরোপা জিতেছে বার্সেলোনা। এ ছাড়া উয়েফার ক্লাব অফিসিয়াল র‌্যাংকিংয়েও স্পেনের ক্লাবগুলোর অবস্থান উপরের দিকে রয়েছে।

উল্লেখ্য, উয়েফা চ্যাম্পিয়নস লিগের ২০১৫-১৬ মৌসুমের গ্রুপপর্বের ড্র বৃহস্পতিবার অনুষ্ঠিত হবে।