মেইন ম্যেনু

যেভাবে কেরালায় মন্দিরে অগ্নিকাণ্ডে শতাধিক প্রাণহানি (ভিডিও)

ভারতের কেরালা রাজ্যের কোল্লাম পুতিঙ্গালা দেবী মন্দিরে অগ্নিকাণ্ডের ঘটনায় এখন পর্যন্ত নিহতের সংখ্যা বেড়ে ১০৬ জনে দাঁড়িয়েছে। এছাড়া এ ঘটনায় আহত হয়েছে আরো অন্তত ৩৮০ জন। শনিবার দিবাগত রাত তিনটার পরে দুই পক্ষের লোকজনের আতশবাজি পোড়ানোর সময় ওই অগ্নিকাণ্ডের ঘটনা ঘটে।

১৫ সদস্যের বিশেষজ্ঞ চিকিৎসক দল নিয়ে ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি ঘটনাস্থলের উদ্দেশ্যে রওয়ানা হয়েছেন। দেশটির প্রভাবশালী সংবাদমাধ্যম এনডিটিভির এক প্রতিবেদেন বলা হয়েছে, রাতে মন্দিরে আতশবাজি পোড়ানোর সময় অন্তত ১০-১৫ হাজার লোক ওই মন্দিরে আশ-পাশে জড়ো হয়েছিলেন। তারা দুই পক্ষের লোকজনের আতশবাজি পোড়ানো দেখছিলেন।

এসময় মন্দিরের পাশে দুই তলা একটি ভবনে রাখা আতশবাজির স্তুপের ওপর আগুনের ফুলকি পড়লে দ্রুত বিস্ফোরণ ঘটে। এতে ওই ভবনের আশ-পাশের লোকজন হঠাৎ দ্বিগ্বিদিক দৌড়াদৌড়ি শুরু করলে অনেকেই পায়ের চাপায় পিষ্ট হয়ে ও আগুনে প্রাণ হারান। এছাড়া এ ঘটনায় ওই ভবন ধসে পড়ে। কয়েক মিনিটের মধ্যে আগুনের লেলিহান শিখা মন্দিরে ছড়িয়ে পড়ে।

কেরালার মুখ্যমন্ত্রী উম্মেন চন্ডি বলেছেন, ওই মন্দিরে প্রতিযোগিতামূলক আতশবাজি পোড়ানোর অনুমতি ছিল না। মন্দিরে সাত দিনব্যাপি ঐতিহ্যবাহী উৎসব চলছিল। এই ঘটনায় পুতিঙঙ্গালা মন্দির কর্তৃপক্ষের বিরুদ্ধে মামলা দায়ের করেছে পুলিশ। ঘটনা তদন্তে পৃথক তিনটি কমিটি গঠন করেছে রাজ্য সরকার।

এদিকে, নিহতদের পরিবারকে ২ লাখ টাকা এবং আহতদের ৫০ হাজার টাকা করে আর্থিক সহায়তার ঘোষণা দিয়েছেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি।