মেইন ম্যেনু

যে আমলে মানুষের প্রয়োজন পূরণ হয়

আল্লাহ তাআলা বান্দাকে তাঁর সুন্দর সুন্দর নামের জিকির বা আমল করার কথা বলেছেন। রাসুলুল্লাহ সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম হাদিসে আলাদা আলাদাভাবে এ নামের জিকিরের আমল ঘোষণা করেছেন। আল্লাহ তাআলার গুণবাচক নামসমূহের মধ্যে (اَلْبَاسِطُ) ‘আল-বাসিতু’ একটি। যার অর্থ হলো- ‘বান্দার রিযিকের মধ্যে প্রশস্তকারী অথবা অন্তরকে প্রশস্তকারী।’

সংক্ষেপে এ গুণবাচক নাম (اَلْبَاسِطُ) ‘আল-বাসিতু’-এর জিকিরের আমল ও ফজিলত তুলে ধরা হলো-

উচ্চারণ : ‘আল-বাসিতু’
অর্থ : ‘বান্দার রিযিকের মধ্যে প্রশস্তকারী অথবা অন্তরকে প্রশস্তকারী।’

আল্লাহর ‍গুণবাচক নাম (اَلْقَابِضُ)-এর আমল

ফজিলত
>> যে ব্যক্তি এ পবিত্র গুণবাচক (اَلْبَاسِطُ) ‘আল-বাসিতু’ নামটি সাহরির সময় হাত উঠিয়ে দশবার পাঠ করে উভয় হাত নিজের মুখমণ্ডলে মুছে নেয়; তবে সে নিজের প্রয়োজন পূরণের জন্য কারো নিকট কখনো আবেদন করা বা বলার প্রয়োজন অনুভব করবে না।

>> যে ব্যক্তি এ পবিত্র গুণবাচক (اَلْبَاسِطُ) ‘আল-বাসিতু’ নামের জিকির প্রত্যহ ১৪০ বার পড়বে; সে ব্যক্তি বিপদ-আপদ থেকে নিরাপদ থাকবে।

>> যে ব্যক্তি এ পবিত্র গুণবাচক (اَلْبَاسِطُ) ‘আল-বাসিতু’ নামের জিকির ফজরের নামাজের পর হাত উত্তোলন করে ১০ বার পড়ে মুখের উপর মুছে নিলে কখনও অন্যের মুখাপেক্ষী হবে না এবং রুজিতে বরকত হতে থাকবে।

পরিশেষে…
মুসলিম উম্মাহর উচিত আল্লাহ তাআলার গুণবাচক নামের জিকির করে বিপদ-আপদ থেকে মুক্তি, রুজিতে বরকত লাভ এবং অমুখাপেক্ষিতা থেকে মুক্ত থাকা। আল্লাহ তাআলা সবাইকে নিয়মিত এ গুণবাচক নামের জিকির ও আমল করার তাওফিক দান করুন। আমিন।



« (পূর্বের সংবাদ)