মেইন ম্যেনু

যে কারণে আমাদের লাউ খাওয়া উচিৎ

আমরা সবাই কম-বেশি সবুজ শাকসবজির স্বাস্থ্য উপকারিতা সম্পর্কে জানি। তাদের মধ্যে একটি লাউ যা দেখতে বোতল আকৃতির, আর তাই লাউ এর ইংরেজি নাম হয়েছে Bottle gourd। কচি লাউয়ের রং হালকা সবুজ, ভেতরে সাদা রংয়ের শাঁস।

বাংলাদেশে লাউ একটি জনপ্রিয় সবজি। লাউ সাধারণত শীতকালে বসতবাড়ির আশপাশে চাষ হয়। লাউয়ের পাতা ও ডগা শাক হিসেবে এবং লাউ তরকারী ও ভাজি হিসেবে খাওয়া যায়। বাংলাদেশে লাউয়ের অনেক জাত চোখে পড়ে। ফলের আকার-আকৃতি এবং গাছের লতানোর পরিমাণ থেকেও জাতগুলো পাথর্ক্য করা যায়। যাই হোক নিচে যে সকল কারণে আমাদের নিয়মিত লাউ খাওয়া উচিৎ তা আলোচনা করা হল:

হজমে সাহায্য করে:
লাউয়ে প্রচুর পরিমাণে দ্রবণীয় এবং অদ্রবনীয় ফাইবার আছে। দ্রবণীয় ফাইবার খাবার সহজে হজম করতে সাহায্য করে এবং হজম সংক্রান্ত সকল সমস্যা সমাধানে সহায়তা করে। এছাড়াও নিয়মিত লাউ খেলে অ্যাসিডিটি ও কোষ্ঠকাঠিন্য সমস্যার সমাধান করে। অদ্রবণীয় ফাইবার পাইলসের সমস্যা কমাতে সাহায্য করে।

ওজন সাহায্য করে:
আপনি যদি ওজন কমানোর কথা ভেবে থাকেন তাহলে খাবার তালিকায় লাউ রাখুন। লাউ একটি কম ক্যালোরি সম্পন্ন ডায়েট। লাউয়ের ৯৬% হলো পানি। লাউয়ে প্রচুর পরিমাণে ডায়েটারি ফাইবার থাকে এবং খুবই কম ক্যালোরি থাকে যা ওজন কমাতে অত্যন্ত সহায়ক। তাই ওজন কমানোর চিন্তা করছেন যারা তাঁরা বেশি করে লাউ খান। তাহলে শরীরে কম ক্যালোরি যুক্ত হবে এবং পেটও ভরবে।

হার্টের জন্য ভালো:
এই সবজিতে শূন্য কলেস্টেরল আছে যা হার্টের স্বাস্থ্যের জন্য ভালো। এতে ভিটামিন সি এবং অ্যান্টিঅক্সিডেন্টসমূহের মত ভিটামিন এর সমৃদ্ধ পরিমাণ রয়েছে যা হার্টের জন্যে ভালো।

মানষিক চাপ কমায়:
লাউ-এর বেশিরভাগ অংসও পানি দ্বারা পূর্ন যা শরীরের উপর তার শীতল প্রভাব ফেলে ফলে মানুষিক চাপ কমাতে সাহায্য করে।

প্রস্রাবে বিশৃঙ্খলা রোধ করে:
লাউয়ে প্রচুর পরিমাণে পানি আছে। তাই যাদের প্রসাবে জ্বালা পোড়ার সমস্যা আছে কিংবা প্রসাব হলদে হয় তাদের নিয়মিত লাউ খাওয়া উচিত। নিয়মিত লাউ খেলে এ ধরণের সমস্যা থেকে নিস্তার পাওয়া যাবে।-সূত্র: জি নিউজ।