মেইন ম্যেনু

যে কারণে এবার যশোর বোর্ড সর্বনিম্ন স্থানে

যশোর মাধ্যমিক ও উচ্চ মাধ্যমিক শিক্ষা বোর্ডে এবারের এইচএসসি ও সমমানের পরীক্ষায় পাসের হার ১৪.১৩ শতাংশ কমেছে। পাশাপাশি জিপিএ-৫ প্রাপ্তির সংখ্যাও আশঙ্কাজনক হারে কমেছে।

এবছর যশোর বোর্ডে পাশের হার ৪৬ দশমিক ৪৫ শতাংশ। গত বছর পাসের হার ছিলো ৬০.৫৮ শতাংশ। এর আগের বছর অর্থাৎ ২০১৩ সালে পাসের হার ছিলো ৬৭.৪৯ শতাংশ।

এ বছর যশোর বোর্ডে এক হাজার ৯২৭ জন জিপিএ-৫ পেয়েছে। গত বছর এর সংখ্যা ছিলো ৪ হাজার ২৩১জন।

গত বছরেও ফল বিপর্যয় হয়েছিলো যশোর বোর্ডে। কমেছিলো জিপিএ-৫ প্রাপ্তির সংখ্যাও। তখন কারণ হিসেবে ধরা হয়েছিলো ইংরেজিকে।

এবারও একক বিষয় হিসেবে সবচেয়ে বেশি সংখ্যক শিক্ষার্থী ফেল করেছেন ইংরেজিতে। এ বিষয়ে মোট পরীক্ষার্থীর ৫১ শতাংশ পাস করেছেন। অর্থাৎ প্রায় অর্ধেক পরীক্ষার্থী ইংরেজিতে ফেল করেছেন। যা বোর্ডের সামগ্রিক ফলাফলে প্রভাব ফেলেছে।

যশোর শিক্ষাবোর্ডের চেয়ারম্যান আবদুল মজিদ বলেন, ইংরেজি বিষয়ের প্রশ্নপত্র খুবই কঠিন হয়েছিল। পরীক্ষার দিন অনেক শিক্ষার্থীই বিষয়টি জানিয়েছিলেন। পরীক্ষার ফলাফলেও এর প্রতিফলন দেখা গেল।

এবছর যশোর বোর্ডে এক লাখ ১৪ হাজার ২৮১জন শিক্ষার্থীর মধ্যে পাস করেছে ৫৩ হাজার ৮৭জন।