মেইন ম্যেনু

যে কারণে ফেসবুককে গুণতে হচ্ছে বড় জরিমানা!

যোগাযোগের অন্যতম মাধ্যম হল ফেসবুক। এখানে সকল বয়সের মানুষ একে অপরের সাথে বন্ধুত্বের মাধ্যমে যোগাযোগ রক্ষা করে। এখানে বিভিন্ন ধরনের সুযোগ-সুবিধা থাকার পাশাপাশি অনেক সময় অনেকে এখানে বিভিন্ন ধরনের খারাপ কাজে লিপ্ত হয়। যার ফলে অনেক সময় বিড়ম্বনায় পড়তে হয়।

বর্তমানে ফেসবুক কর্তৃপক্ষ ১৩ বছরের কম বয়সী ছেলেমেয়েদের ফেসবুক চালানতে নিষেধাজ্ঞা প্রদান করেছে। যদি কেউ ১৩ বছরের কম বয়সে ফেসবুক চালায় তাহলে এর জন্য ফেসবুক কর্তৃপক্ষকে জরিমানা গুনতে হতে পারে। তাই তারা সকল একাউন্টে নজরদারি করবেন যে, ১৩ বছরের কম বয়সে কেউ ভুল তথ্য দিয়ে ফেসবুক চালাচ্ছে কিনা।

ঘটনার সূত্রপাত ঘটে, যখন ১১ বছর বয়সে একটি মেয়ে অনলাইনে যৌন শিকারের সম্মুখীন হয়। তার বাবা ফেসবুক কর্তৃপক্ষের বিপক্ষে মামলা করেন। ফেসবুক কর্তৃপক্ষ জরিমানা প্রদানের জন্য রাজি হয়েছেন। তবে তারা কত টাকা জরিমানা বাবদ দিবেন তা এখনও প্রকাশ করা হয় নি।

মেয়েটির বাবা ফেসবুকের বয়স সীমা নীতি জোরদার না করার কারণে ও তাদের নীতিমালা ব্যর্থ হবার কারণে মামলা দায়ের করেন। ডেইলি মেইল এর প্রতিবেদন অনুযায়ী নর্দার্ন আয়ারল্যান্ড এ বসবাস করা সেই মেয়েটি তার কিছু নোংরা ছবি নিজের ওয়ালে পোস্ট করেন এবং অনেক পুরুষের সাথে কানেক্ট হবার চেষ্টা করেন।

কিন্তু সেই পরিবারের আইনজীবী বলেন, এটা ফেসবুকের দায়িত্ব যে তারা এ সকল পরিস্থিতির দেখাশোনা করবে। কর্তৃপক্ষের অবহেলার কারণে অনেকে এরকম খারাপ পরিস্থিতির শিকার হচ্ছে।

শিশুরা না বুঝে একাউন্ট খুলে নিজেদের বিপদে ফেলছে। এ সকল সমস্যা সমাধানের জন্য ফেসবুকের অবশ্যই ব্যবস্থা নিতে হবে। যেহেতু ফেসবুক কর্তৃপক্ষ সেই মেয়েটির ক্ষতির জন্য জরিমানা গুনছে, তাই হয়ত সামনে কর্তৃপক্ষকে আরও জরিমানা গুনতে হতে পারে।-সূত্র: ইন্ডিয়া টুডে।