মেইন ম্যেনু

যে কারণে বাড়িতে আটক কারিনা!

গৃহবন্দি কারিনা কাপুর খান৷ খবরটি মনের মধ্যে অন্যরকম একটি আগ্রহের সৃষ্টিকরে। কেন, কি কারণে বন্দি করা হলো কারিনাকে। তবে কারিনা গৃহবন্দি মানে আস্ত একটা বাড়িতে বন্দি নয়, একটা ঘরের মধ্যে আটক তিনি৷ তাকে নিয়ে রীতিমতো চিন্তায় সাইফ আলি খান৷ কিন্তু কে আটকে রাখলো তাকে? না, অন্য কেউ নন, কারিনাকে আটক করেছেন কারিনা নিজেই৷ প্রতিদিন নিয়ম করে সকাল থেকে একটা ঘরে তিনি নিজেকে আটকে রাখছেন৷

তবে কেন এই আটকা আটকির নাটক করছেন কারিনা। সকালে ঘরথেকে না বাহির হয়ে বেরোচ্ছেন সেই দুপুরবেলায়৷ এবং ইতিমধ্যেই তার চেহারায় একটা ছাপও লক্ষ করা গেলো। তবে কেন চেহারায় ছাপ পালানে শুরু করেছে এই ঘটনার কারণ কি? কারিনার এই আচরণে রীতিমতো উদ্বিগ্ন সাইফ আলি খান৷ তিনি চান, আবার আগের সেই বেগমকে ফিরে পেতে৷

কিন্তু কী এমন ঘটেছে কারিনার সঙ্গে? কারিনা যে ‘উড়তা পঞ্জাব’ ছবির কাজ করছিলেন, সে তো সবাই জানেন৷ এটাও এতোদিনে সবাই জেনে গিয়েছেন আর বাল্কির নাম না-ঠিক হওয়া ছবিতেও কাজ করছেন কারিনা৷ আর সেই ছবির কারণেই এই ঘটনা৷ কারিনা জানিয়েছেন, ছবিতে তার চরিত্রটাই এমন এক মানুষের, যে চরিত্রে প্রবেশ করার জন্য তাকে দীর্ঘক্ষণ একা থাকতেই হবে৷ চেহারায় ফেলতেই হবে একটু অবসাদের ছাপ৷ আর তাই এ সিদ্ধান্ত৷

কারিনা এটাও জানিয়েছেন, সারা জীবনে যে কাজটি তিনি কখনো করেননি, এখন তাকে করতে হচ্ছে সেই কাজটি। সে কাজটি হলো ‘মেথড অ্যাকটিং’৷ বাল্কির ছবি বলে কথা! যেমন তেমন ভাবে করলে তো হবে না৷ তা কাজের জন্য যা খুশি তাই করুকনা কেন তবে তার কাজ ভালো হলেই হলো৷ কিন্তু সাইফের হাল তাতে ভালো থাকবে তো?