মেইন ম্যেনু

যে কারণে ভারতে ফ্রি ফেইসবুক বন্ধ

সোমবার ফেইসবুকের ‘ফ্রি বেসিকস’ ইন্টারনেট সেবা বন্ধ করে দিয়েছে ভারতের টেলিযোগাযোগ নিয়ন্ত্রক কর্তৃপক্ষ। ‘ফ্রি বেসিকস’-এর মাধ্যমে বিনা খরচে নির্দিষ্ট কিছু ওয়েবসাইট অ্যাক্সেস করতে পারতেন দেশটির ব্যবহারকারীরা। ‘ফ্রি বেসিকস’-এর মাধ্যমে ফেইসবুক যে সেবা দিচ্ছে, তাতে ইন্টারনেট সংযোগবঞ্চিত জনসাধারণের কাছে ইন্টারনেট সেবা পৌঁছানোর বদলে ‘নেট নিউট্রালিটি’ লঙ্ঘন করা হচ্ছে বলে জোর শোর তুলেছিলেন এর সমালোচনাকারীরা।

এ প্রসঙ্গে ফেইসবুক কর্তৃপক্ষের এখনও কোনো আনুষ্ঠানিক বক্তব্য দেয়নি বলে জানিয়েছে ব্রিটিশ সংবাদমাধ্যম বিবিসি। এ প্রসঙ্গে ভারতে বিবিসির ডিজিটাল প্রোডিউসার ভিকাশ পান্ডে জানিয়েছেন, ভারতে জোর প্রচারণা চালালো হয়েছে ফ্রি বেসিকস-এর ইতিবাচক ও নেতিবাচক উভয় দিক নিয়েই।

“যারা শহরে থাকেন এবং অনেক বেশি ইন্টারনেট ব্যবহার করেন, তাদের দাবি ছিল; ‘আপনি গ্রামের লোকদের শর্তসহ ফ্রি ইন্টারনেট সেবা দিয়ে সেটা কীভাবে ব্যবহার করতে হবে সেই নির্দেশনা দিতে পারেন না’।”–বলেন ভিকাশ পান্ডে।

অন্যদিকে ফেইসবুকের সহ-প্রতিষ্ঠাতা মার্ক জাকারবার্গ বরাবরই দাবি করে এসেছেন, একেবারে বিনা খরচে ইন্টারনেটের সব কনটেন্ট সরবরাহ করা সম্ভব নয়।

২০১৩ সালে ইন্টারনেট ডট অর্গ প্রকল্প শুরুর পর থেকে বরাবরই এটি নিয়ে নিজেদের অবস্থানে অনড় থেকেছে ফেইসবুক। ৩৬টি দেশে এই সেবা দেয় সামাজিক যোগাযোগের শীর্ষ মাধ্যমটি। এর মাধ্যমে ইন্টারনেট সেবার আওতায় এসেছেন দেড় কোটি ইন্টারনেট বঞ্চিত ব্যবহারকারী।