মেইন ম্যেনু

যে খাবার ফ্রিজে রাখা যাবে না

ফ্রিজ ছাড়া একটা দিন ভেবে দেখুন তো? শহুরে জীবনে ফ্রিজ যে কি উপকারে লাগে তা যার নেই সেই বুঝে। গ্রীষ্মের প্রচন্ড খরতাপে ফ্রিজের এক গ্লাস ঠান্ডা পানি পারে মনকে জুড়িয়ে দিতে। খাবার টাটকা কিংবা দীর্ঘদিন ধরে সংরক্ষণ করার জন্য ফ্রিজের জুড়ি মেলা ভার।

চটজলদি জীবনের জন্য সবাই এখন ফ্রিজের ওপর নির্ভরশীল।খাবার সংরক্ষণের জন্য ফ্রিজের ব্যবহার হলেও আমরা প্রায় সময়ই না বুঝে কিছু জিনিস ফ্রিজে রাখি যা রাখা আদতে ঠিক না। চলুন জেনে নেই সেই খাবারগুলোর কথা যা ফ্রিজে সংরক্ষণ করলে উল্টো নষ্ট হয়ে যায়:

টমেটোঃ শীতকালে টমেটো ছাড়া সবজির কথা ভাবা যায় না। বাজার থেকে বেছে বেছে টাটকা টমেটো কিনে আনলেন, তারপর দিলেন ফ্রিজের ড্রয়ারে ভরে। ভাবলেন টাটকা খাবেন। এই তো শেষ,গেল তো টমেটোর ভিতরের অংশ শুকিয়ে। ফ্রিজে থেকে টমেটোর স্বাদ পুরোটাই নষ্ট হয়ে যায়।

মাখনঃ মাখন গরমের দিনে বাইরে রেখে দিলে গলে যায়। তাই ফ্রিজে রাখা ছাড়া গতি নেই। কিন্তু মনে রাখবেন মাখন পাস্তুরিত দুধ দিয়ে তৈরি হওয়ায় তা ফ্রিজে না রাখলেও নষ্ট হয় না। ফ্রিজে রাখলে মাখনের জলীয় অংশ উবে নেয়। তাই নিচে রেখে যাত তাড়াতাড়ি মাখন খেয়ে নেওয়াই ভাল।

মধুঃ মধুতে প্রচুর পরিমাণে সুগার থাকায় ফ্রিজে সংরক্ষণ করলে মধুর ঘনত্ব বেড়ে যায়। এতে মধুর স্বাদ নষ্ট হয়ে যায়।

কফিঃ বাইরে কৌটোতে রাখলে অনেক সময় কফি জমে যায়। তাই কয়েকবার ব্যবহারের পর অনেকেই বুদ্ধি খাটিয়ে কফি রাখেন ফ্রিজে। তাতে কফিতে জমাট বাঁধে না এ কথা সত্য। কিন্তু এতে করে কফির স্বাদ পুরোপুরি নষ্ট হয়ে যায়। এর প্রধান কারণ ফ্রিজের আর্দ্রতা।

আলুঃ আলুতে প্রচুর পরিমাণে স্টার্চ থাকে। আলু ফ্রিজে সংরক্ষণ করলে স্টার্চ সুগারে পরিণত হয়ে যায়। যার ফলে ফ্রিজে রাখা আলু খেতে সুস্বাদু হয় না।

পেঁয়াজঃ যে স্থানে সর্বদা আলো-বাতাস প্রবেশ করে সেখানে পেঁয়াজ সংরক্ষণ করতে হয়। ফ্রিজে পেঁয়াজ রাখলে পেঁয়াজ অপেক্ষাকৃত নরম হয়ে যায় এবং পেঁয়াজ থেকে একধরনের দূর্গন্ধের সৃষ্টি হয়। কেননা ফ্রিজ পেঁয়াজের আর্দ্রতা টেনে নেয়।
পাউরুটিঃ পাউরুটি ফ্রিজে রাখে না এমন লোক বোধ হয় কমই আছে। পাউরুটি একবার খুলে ফেললে পুরোটা শেষ করা হয় না বলে বাকী অংশ মুড়ে ফ্রিজে রেখে দেওয়া চল আছে। ফ্রিজে রাখলে পাউরিুটি শক্ত হয়ে যায়। পাউরুটির যে আর্দ্রতা থাকে ফ্রিজ তা শুষে নেয়।

রসুনঃ ঠান্ডা স্থানে রসুন রাখলে তা অঙ্কুরিত হয়ে যাওয়ার সম্ভবনা থাকে। আর তা যদি ফ্রিজে সংরক্ষণ করা হয় তাহলে তো কথাই নেই। এমনকি রসুন নরম পর্যন্ত হয়ে যায় ফ্রিজে রাখলে।

তেলঃ তেল কখনোই ফ্রিজে সংরক্ষণ করতে হয় না। তেলের ঘনত্ব বেশী থাকায় ফ্রিজে রাখলে তা জমে যায়। সুবিধা-অসুবিধা নিয়েই ফ্রিজের ব্যবহার চলবে। তাই বুঝেশুনে ফ্রিজে খাবার রাখুন