মেইন ম্যেনু

যে ৫ টি কারণে “স্বার্থপর” মানুষেরা সকলের চাইতে বেশী সুখী!

ছোটবেলা থেকে আমরা এটাই শুনে এসেছি যে স্বার্থপর মানুষেরা ভালো নন। তাঁরা কখনো সুখী হতে পারেন না, তাঁদেরকে কেউ ভালোবাসে না, তাঁদের জীবন কাটে নিঃসঙ্গতা আর কষ্টে। কিন্তু সত্যটা এই যে বর্তমান পৃথিবীতে একটু স্বার্থপর হওয়া ভালো এবং একটু স্বার্থপর মানুষেরাই আসলে জগতে অধিক সুখী। কীভাবে? চলুন জেনে নিই।

তাঁরা সবাইকে খুশি করার চেষ্টা করেন না

অন্যকে খুশি রাখা জগতে সবচাইতে কঠিন কাজ। আপনি কখনোই একসাথে সবাইকে খুশি রাখতে পারবেন না। স্বার্থপর মানুষেরা এই কাজটি করেনও না। তাঁরা নিজের খুশিটাই আগে দেখেন। তাই সকলের চোখে স্বার্থপর হলেও আসলে তাঁরা ভালো থাকেন।

অন্যের জন্য ভেবে হতাশায় ও কষ্টে ভোগেন না

স্বার্থপর মানুষেরা আগে নিজের জন্য ভাবেন। অন্যের কথা ভেবে তাঁরা অস্থির হয়ে পড়েন না। তাঁরা বোঝেন যে সকলকেই নিজের ভাবনা নিজে ভাবতে হয়। ফলে তাঁরা জীবনে অধিক সুখী হয়ে থাকেন।

পৃথিবীর সকল দায়িত্ব তাঁদের কাঁধে না

আপনি চাইলেও নিজের সকল আপনজনের ভালো করতে পারবেন না। একজন মানুষ যদি নিজেই নিজেকে ভালো রাখার চেষ্টা না করেন, তাহলে আপনি কীভাবে তাঁকে ভালো রাখবেন? স্বার্থপর মানুষেরা এই সত্যটি জানেন। তাই তাঁরা সকলের দায়িত্ব নিজের ঘাড়ে তুলে নেন না। ফলে অনেকটা সুখে শান্তিতে থাকতে পারেন।

তাঁরা সম্পর্কের ক্ষেত্রে অনেক বেশী পেয়ে থাকেন

সম্পর্ক দেয়া ও নেয়ার নাম। কেবল দিয়ে গেলেই হয় না, বিনিময়ে পেতেও হয়। স্বার্থপর মানুষেরা নিজের পাওনাটার দিকে লক্ষ্য রাখেন বলেই সম্পর্কে সুখীও হয়ে থাকেন অন্যদের চাইতে বেশী।

নিজের জন্য অনেক বেশী সময় পান তাঁরা

সারা পৃথিবীকে নিয়ে অহেতুক ভাবনা করার সময় তাঁদের নেই। ফলে নিজের জন্য, নিজেকে নিয়ে নিয়ে ভাবার মত সময় তাঁদের অনেক বেশী। নিজের জন্য অন্যদের চাইতে অনেক বেশী করেন তাঁরা। নিজেকে ভালো রাখার সকল চেষ্টা করে চলেন সবসময়।

সূত্র
Why “Selfish” People Are Happier & Healthier- mindbodygreen হতে অনুপ্রানিত