মেইন ম্যেনু

যে ৬টি বিষয় ভুলেও সহকর্মীর সাথে শেয়ার করবেন না

চাকরিজীবী মানুষদের বেশির ভাগ সময় কর্মক্ষেত্রে কেটে থাকে। দিনের বেশির ভাগ সময় একটি স্থানে কাটার কারণে কর্মস্থলের মানুষগুলো হয়ে যায় বন্ধু, হয়ে যায় পরিবারে সদস্যের মত আপন। কিন্তু একটি কর্মক্ষেত্রে নানা ধরণের মানুষ থাকে, সব মানুষ আপনাকে আপন করে নিতে পারবে না। কিছু মানুষ আপনাকে পছন্দ করবে আবার কিছু মানুষ আপনাকে অপছন্দ করবে। তাই আপনি যদি সবাইকে বন্ধু মনে করে থাকেন, তবে সবচেয়ে বড় ভুলটি আপনি করতে যাচ্ছেন। বন্ধু ভেবে যে সহকর্মীটিকে আপনি আপনার একান্ত বিষয় শেয়ার করছেন সেই আপনার সবচেয়ে বড় ক্ষতি করছে। তাই সাবধান থাকুন, কিছু বিষয় ভুলেও সহকর্মীর সাথে আলোচনা করতে যাবেন না।
১। মতামত

অফিসের সকল সহকর্মী আপনার পছন্দ নাও হতে পারে। আবার কিছু সহকর্মী আপনার প্রিয় হতে পারে। আপনি কাকে পছন্দ করেন বা করেন না সেটি অন্য সহকর্মীর আলোচনা করতে যাবেন না। এটি আপনার জন্য ক্ষতিকর হতে পারে।
২। দাম্পত্য বা পারিবারিক জীবন

নিজের ব্যক্তিগত জীবন নিয়ে সহকর্মীর সাথে আলোচনা করবেন না। এই কাজটি আপনার ব্যক্তিত্বের ক্ষতি করবে। আপনার পরিবারকে ছোট করে দিবে। আপনার পরিবারে সাথে আপনার কী হয়ছে সে বিষয়ে সহকর্মীর সাথে আলোচনা করা থেকে বিরত থাকুন।
৩। পরচর্চা

এক সহকর্মীর সাথে অন্য সহকর্মী নিয়ে পরনিন্দা করা থেকে বিরত থাকুন। Ms Musson মনে করেন “আপনি যদি এক সহকর্মীর কাছে অন্য সহকর্মীকে নিয়ে পরচর্চা করে থাকেন, তারাও আপনার অবর্তমানে আপনাকে নিয়ে পরচর্চা করে থাকবে। মনে রাখবেন সহকর্মীরা কেউ আপনার রক্তের সম্পর্কের নয় আপনি যত তাদেরকে কিছু বলতে না করেন না কেন, তারা এটি দুই তিনজনকে অব্যশই বলে থাকবেন”।
৪। আপনার হতাশা

আপনি আপনার চাকরি নিয়ে খুশি নন, এই চাকরি নিয়ে আপনি হতাশ। এটি সহকর্মীর সাথে কখন আলোচনা করতে যাবেন না। যাকে আপন ভেবে আপনার গোপন কথাটি বলছেন, সেই এটি আপনার প্রতিযোগী সহকর্মীর কাছে বলে দিচ্ছে।
৫। জীবনের ভুলগুলো

জীবনে সবাই ছোট বড় ভুল করে থাকে, কারোর ভুল বেশি থাকে। আবার কারোর কম। অতীতের ভুলগুলো আপনার সহকর্মীর সাথে আলোচনা করবেন না। Ms Musson বলেন “ কর্মক্ষেত্রে সবচেয়ে বড় সমস্যাটি হল সবাই নিষ্পাপ চেহারা করে ঘুরে বেড়ান, কিন্তু এরাই আপনার ক্ষতি সাধন করার জন্য সম্মুখ হয়ে আছেন”।
৬। জীবনের বড় কোন ঘটনা

আপনি কি কোন পুরস্কার পেতে যাচ্ছেন? কিংবা বড় কোন ঘটনা ঘটতে যাচ্ছে আপনার জীবনে? এই ঘটনাটি সহকর্মীর সাথে শেয়ার করা থেকে বিরত থাকুন। আপনার সহকর্মী জানার আগে আপনার ম্যানেজার বা বসকে আগে জানান। এতে অনেক অপ্রত্যাশিত ঘটনাকে এড়ানো সম্ভব হবে।

কর্মস্থল আমাদের জীবনের অবিচ্ছেদ্য অংশ। সহকর্মীরা এই কর্মস্থলের একটি গুরুত্বপূর্ণ অংশ। দিনের বেশির ভাগ সময় আমাদের সহকর্মীর সাথে কাটাতে হয়। তাদের সাথে বন্ধুত্বপূর্ণ সম্পর্ক তৈরি করার চেষ্টা করুন। তবে কিছুটা সাবধান, আপনি জানেন না কে আপনার প্রকৃত বন্ধু আর কে শত্রু!