মেইন ম্যেনু

যে ৭টি কাজ আপনার মস্তিষ্কের কার্যক্ষমতা নষ্ট করে দিচ্ছে

আগের মত কোন কিছু মনে রাখতে পারছেন না? কোথায় কোন জিনিস রাখছেন, সেটি মনে নেই? কিংবা কাছের বন্ধুটির নাম মনে করতে পারছেন না? হঠাৎ করে মনে হচ্ছে বয়সের কারণে মস্তিষ্ক তার কার্যক্ষমতা হারিয়ে ফেলছে। মস্তিষ্ক তার কার্যক্ষমতা হারিয়ে ফেলছে ঠিক কিন্তু তার জন্য আপনি নিজে দায়ী! আমাদের এমন কিছু অভ্যাস আছে যার কারণে আমাদের মস্তিষ্ক প্রতিনিয়ত তার কার্যক্ষমতা হারিয়ে ফেলছে।
১। ভিটামিন বি১২ না খাওয়া

NYU Langone Medical Centre এর মতে ভিটামিন বি১২ এর অভাবের কারণে মস্তিষ্ক তার কাজ ঠিকমত করতে পারে না। স্মৃতিশক্তি কমে যাওয়া, মানসিক অস্থিরতা মূলত ভিটামিন বি১২ অভাবের কারণে হয়ে থাকে। মূলত প্রাণীজ খাবার থেকে ভিটামিন বি১২ পাওয়া যায়। যেমন সেলফিস, সামুদ্রিক মাছ, কলিজা ইত্যাদি।
২। অতিরিক্ত চিনি জাতীয় খাবার খাওয়া

অতিরিক্ত খাদ্য গ্রহণ, ভুলে যাওয়া, হতাশা, মস্তিষ্ক কম কাজ করা ইত্যাদি সব কিছু অতিরিক্ত চিনি এবং চিনি জাতীয় খাবার খাওয়ার সাথে জড়িত। U.S Department of Agriculture এক গবেষণায় দেখা গেছে আমেরিকানরা বার্ষিক গড়ে ১৫৬ পাউন্ড চিনি খেয়ে থাকেন!দীর্ঘদিন টানা চিনি জাতীয় খাবার খাওয়া হলে মস্তিষ্কের কর্মক্ষমতা হ্রাস পায় এবং স্মৃতিশক্তি কমে যায়।
৩। ধূমপান

জার্নাল অফ Neurochemistry এর মতে ধূমপান এবং মস্তিষ্কের ক্ষমতা নষ্ট হওয়া একে অপরের সাথে জড়িত। গবেষণায় দেখা গেছে টোব্যাকো রক্তের শ্বেত কণিকার উপর প্রভাব ফেলে নার্ভ সিস্টেমকে ক্ষতি করে থাকে। যা সরাসরি মাস্তিষ্কে প্রভাব ফেলে দিয়ে থাকে। এমনকি পরোক্ষ ধূমপান মস্তিষ্কের জন্য ক্ষতিকর। যেসব শিশুরা পরোক্ষ ধূমপানের শিকার হয়ে থাকে তাদের স্মরণশক্তি তুলনামূলকভাবে কম থাকে।
৪। ঘুমের সমস্যা

পর্যাপ্ত পরিমাণ ঘুম দেহের বিভিন্ন অঙ্গের কোষ তৈরিতে সাহায্য করে থাকে। দীর্ঘদিন অনিদ্রা সমস্যা ধীরে ধীরে মস্তিষ্কের কার্যক্ষমতা নষ্ট করে দেয়। এই কারণে চিকিৎসকরা ৮ ঘন্টা ঘুমানোর পরামর্শ দিয়ে থাকেন। এই ঘুম আপনাকে পরের দিনের কাজের জ্বালানি দিয়ে থাকবে।
৫। সকালের নাস্তা না করা

অনেকেই সকালে নাস্তা না করে দিন শুরু করে থাকেন। ছোট এই একটি কাজ আপনার মস্তিষ্কের অনেক ক্ষতিসাধন করছে। সকালের নাস্তা না করার কারণে আপনার রক্তে চিনির লেভেল কমে যাচ্ছে। এর কারণে শরীরে প্রয়োজনীয় পুষ্টির অভাব দেখা দেয়। সকালে নাস্তায় পুষ্টিকর খাবার খাওয়ার চেষ্টা করুন।
৬। জাঙ্ক ফুড

যখন আপনার শরীর প্রয়োজনীয় পুষ্টি না পায়, তখন কি হয়? শরীরের কোষগুলো পুষ্টির অভাবে আস্তে আস্তে মারা যায়। পরিমিত জাঙ্ক ফুড খাওয়া মস্তিষ্ক ক্ষতিসাধন করে না। তবে নিয়মিত জাঙ্ক ফুড খাওয়ার ফলে শরীরে প্রয়োজনীয় পুষ্টির অভাব দেখা দিয়ে থাকে। যার কারণে মস্তিষ্ক সঠিকভাবে তার কাজ করতে পারে না।
৭। পড়া থেকে বিরত নেওয়া

French National Institute এ গবেষণায় দেখা গেছে যে দীর্ঘদিন পড়া থেকে বিরত থাকার কারণে শতকরা ১৮ ভাগ মানুষের স্মৃতিশক্তি কমে যায়। পড়া মস্তিষ্ককে একাধিক কাজ করার ক্ষমতা বৃদ্ধি করে। নিউরোলজিস্টদের মতে আমদের মস্তিষ্ক নতুন নতুন জিনিস গ্রহণ করার জন্য সদা প্রস্তুত। মস্তিষ্কের কার্যক্ষমতা বৃদ্ধির জন্য একে প্রতিনিয়ত নতুন নতুন তথ্য প্রদান করুন। বিশেষজ্ঞরা ঘুমাতে যাওয়ার ৩০ মিনিট আগে বই পড়ার পরামর্শ দিয়ে থাকেন। এটি এক প্রকার মস্তিষ্কের ব্যায়াম মনে করতে পারেন।

পুষ্টিকর খাবার গ্রহণ, স্বাস্থ্যকর জীবন যাপন সুস্থ রাখতে পারে আপনার মস্তিষ্ক।