মেইন ম্যেনু

যোগ্যতা আছে তবু আয় কম? জেনে নিন ধনীদের ১০টি পরামর্শ

যাঁরা ধনী হন তাঁদের বিভিন্ন অভ্যাস ও কৌশল থাকে। কিন্তু অনেকেই সেগুলি জানা না থাকায় যোগ্যতা থাকা সত্বেও আয় বাড়াতে পারেন না।

সবাই ধনী হতে পারে না। সবাই যোগ্যতা অনুযায়ী আয় করতে পারে না। কারণ সবাই জানে না ধনী হতে গেলে কী কী অভ্যাস তৈরি করতে হয়।

১। আর্থিক বিষয়ে কখনও আবেগপ্রবণ হতে নেই। বিশেষজ্ঞরা বলেন, আবেগপ্রসূত সিদ্ধান্তের মাধ্যমে দ্রুত কিছু পাওয়ার চেয়ে ধীরে চাহিদা পূরণ হলে ভুল কম হয়।

২। ধনীরা চাহিদা ও প্রয়োজনের পার্থক্য বোঝেন। চাওয়া ও প্রয়োজনের মধ্যে পার্থক্য রয়েছে। যা যা চাহিদা সবের প্রয়োজন রয়েছে কি? ধনীরা আগে প্রয়োজন মিটিয়ে পরে চাহিদা মেটান।

৩। ধনী হতে গেলে দীর্ঘমেয়াদি পরিকল্পনা জরুরি। দেখা যায়, ধনীরা তাৎক্ষণিক কিছু পাওয়ার চেয়ে ধীরে ধীরে বড় লক্ষ্যের দিকে এগোন।

৪। ধনীরা একাধিক উৎস থেকে আয় করেন। একটির উপরে নির্ভর করেন না।

৫। ধনী মানুষেরা বাজেট মেনে চলেন। প্রচুর অর্থ থাকলেও তারা বেহিসাবী নন। গবেষণায় বলা হয়, যত ধনীরা বাজেট বানান আগে। পরে খরচ করেন।

৬। নানা ধরনের জরুরি প্রয়োজন তৈরি হয় জীবনে। তার জন্য আগে থাকতেই আলাদা ফান্ড তৈরি করেন ধনীরা। ফলে ধারদেনা করতে হয় না।

৭। কোথায় বিনিয়োগ করবেন এটা আগে ভাবা উচিত। ধনী ব্যক্তিরী শুধু সেখানেই বিনিয়োগ করেন যেটা সম্পর্কে তারা বিস্তারিত জানেন এবং বোঝেন।

৮। ধনীরা হিসাব করে খরচ করেন না এটা ভাবলে মারাত্মক ভুল হবে। তাঁরা বরং প্রতিদিনের হিসেব পর্যন্ত রাখেন।

৯। প্রয়োজনে ধনীরাও ঋণ নেন। তবে সখ মেটানোর জন্য নয়। আর ঋণ পরিশোধের ব্যাপারে সচেতন থাকেন। ঋণের জালে জড়িয়ে পড়েন না।

১০। যাঁরা ধনী হন তাঁরা ধনা বাড়ার সঙ্গে নিজের শিক্ষাও বাড়াতে থাকেন। স্বশিক্ষিত হয়ে ওঠেন। বহু মানুষ তাই তেমন শিক্ষিত না হয়েও ধনী হন।