মেইন ম্যেনু

যোগ্যতা ছাড়াই পুরস্কার, ক্যাটরিনাকে নিয়ে হাসি তামাশা!

২০১৬ সালের ‘স্মিতা পাটিল পুরস্কার’ এবছর পেলেন ক্যাটরিনা কাইফ। বলিউডের প্রথম সারির নায়িকা হয়েও অভিনয়গুণে তিনি দর্শকের মন কাড়তে পারেননি! ফলে, স্মিতা পাটিলের নাম ক্যাটরিনার নামের সঙ্গে জুড়ে যাওয়ায় তোলপাড় গোটা ভারত। গুঞ্জন আর ঠাট্টায় ফেসবুক ট্যুইটার ওয়ালও বেশ জোরগার খিল্লি শুরু করেছে ক্যাটকে নিয়ে৷

১৯৮৪ সাল থেকে শুরু হয় এই স্মিতা পাটিল পুরস্কার। সেই পুরস্কার-প্রাপ্ত নায়িকাদের তালিকাটিও বেশ হেভি ওয়েটের৷ শ্রীদেবী, মণীষা কৈরালা, টাব্বু, ঊর্মিলা মাতন্ডকর, ঐশ্বরিয়া রাই বচ্চন, বিদ্যা বালন, প্রিয়াঙ্কা চোপড়ার মতো অভিনেত্রীরা পেয়েছেন এই পুরস্কার। এ বার সেই তালিকায় যুক্ত হতে চলেছে ক্যাটরিনা কাইফের নাম। ক্যাটরিনার রূপের ভক্ত অনেকেই৷ তবে অভিনয়টা যে তিনি একেবারেই পারেন না একথা বলছেন বেশিরভাগ লোকেই৷

তাই ক্যাটরিনার নাম এই তালিকায় যুক্ত হওয়ায় প্রকাশ্যেই ক্ষোভ জানিয়েছেন অনেকেই। সবারই বক্তব্য এই পুরস্কারের যোগ্যতা নেই ক্যাটের৷ সেই তালিকায় যেমন রয়েছেন সেলিব্রিটিরা, তেমনই রয়েছেন সাধারণ জনতাও!

যেমন টুইট করেছেন ববি দেওল- ‘ক্যাটরিনা কাইফ যদি স্মিতা পাটিল পুরস্কারের হকদার হন, তবে সাজিদ খানকেও অস্কার দেয়া উচিত!’ আবার রবীন্দ্র জাদেজার টুইট বলছে, ‘ক্যাটরিনা কেবল একটাই অভিনয় করেছে বলিউডে! কাজ পাওয়ার জন্য সালমান খানের সঙ্গে প্রেমের অভিনয়!’

সব মিলিয়ে ক্যাটরিনা কাইফের শো-কেসে ‘স্মিতা পাটিল পুরস্কার’ দেখে রাগ ঝাড়ছেন সবারই৷