মেইন ম্যেনু

যৌতুকের টাকা না পেয়ে গৃহবধূর মাথার চুল কর্তন

রংপুরের বদরগঞ্জ উপজেলায় যৌতুকের টাকা না পেয়ে মৌসুমী আক্তার নামে এক গৃহবধূর মাথার চুল কেটে দেওয়ার অভিযোগ উঠেছে। ওই গৃহবধূর স্বামী ও শ্বশুরবাড়ির লোকজন তার চুল কেটে দিয়েছে বলে অভিযোগ উঠেছে।

শুক্রবার উপজেলার গোপালপুর ইউনিয়নের গোপালপুর পশ্চিম পাড়া এলাকায় এ ঘটনা ঘটে।

এ ঘটনায় গৃহবধূ মৌসুমী স্বামী ও শ্বশুরবাড়ির লোকদের বিরুদ্ধে বদরগঞ্জ থানায় অভিযোগ করেছেন।

জানা গেছে, গোপালপুর মুসলিমপাড়ার আব্দুস সাত্তারের নবম শ্রেণিতে পড়ুয়া কিশোরী মেয়ে মৌসুমীকে আট মাস আগে তুলে নিয়ে বিয়ে করেন গোলাম মোস্তফা। পরে মৌসুমীকে বাড়িতে বন্দি করে রাখা হয়। তার সঙ্গে বাবা-মায়ের যোগাযোগ করতে দেওয়া হতো না।

একপর্যায়ে মৌসুমীর বাবার কাছ থেকে যৌতুক হিসেবে ১৬ লাখ টাকা দাবি করেন গোলাম মোস্তফা ও তার পরিবারের লোকজন।

টাকা দিতে না পারায় গত শুক্রবার মৌসুমীকে মারধর করে মাথার চুল কেটে দেয় স্বামী, শ্বশুর নূর ইসলাম ও শাশুড়ি গোলো বেগম।

অতিষ্ট হয়ে রবিবার সকালে মৌসুমী পালিয়ে এসে বাবার বাড়িতে আশ্রয় নেয়। পরে তার মা আঞ্জুয়ারা বেগম বদরগঞ্জ থানায় তিন জনের বিরুদ্ধে অভিযোগ করেন।

বদরগঞ্জ থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মোস্তাফিজার রহমান বলেন, বিষয়টি তদন্তের জন্য উপপরিদর্শক (এসআই) নাজমুল কাদেরকে দায়িত্ব দেওয়া হয়েছে।