মেইন ম্যেনু

রথযাত্রার অনুষ্ঠানে থাকছেন না প্রধান বিচারপতি

সনাতন ধর্মাবলম্বীদের অন্যতম ধর্মীয় অনুষ্ঠান রথযাত্রা উৎসবের একটি অনুষ্ঠানে অতিথি হিসেবে প্রধান বিচারপতি সুরেন্দ্র কুমার (এসকে) সিনহার যোগ দেয়ার কথা থাকলেও দেশের সার্বিক পরিস্থিতি বিবেচনায় এই উৎসবে তিনি যোগ দিচ্ছেন না। মানিকগঞ্জের ধামরাইয়ে একটি অনুষ্ঠানে যোগ দেয়ার কথা ছিল তার। সেখানেই অনুষ্ঠিত হয় দেশের সবচেয়ে বড় রথযাত্রা।

সনাতন ধর্মাবলম্বীদের অন্যতম ধর্মীয় অনুষ্ঠান শ্রী শ্রী জগন্নাথ দেবের রথযাত্রা উৎসব আজ বুধবার থেকে শুরু হচ্ছে। আগামী ১৪ জুলাই উল্টো রথযাত্রার মধ্য দিয়ে শেষ হবে এ উৎসব। এ উপলক্ষে বিভিন্ন ধর্মীয় সংগঠন এবং মন্দির নানা অনুষ্ঠানের আয়োজন করেছে।

প্রধান বিচারপতির এই অনুষ্ঠানে যোগ দেয়ার কথা থাকলেও সার্বিক পরিস্থিতি বিবেচনায় তিনি ওই অনুষ্ঠানে যোগ দিচ্ছেন না। প্রধান বিচারপতির পার্সোনাল সেক্রেটারি (পিএস) জেলা জজ মো. আনিসুর রহমান এই তথ্য নিশ্চিত করেছেন।

ঢাকায় আন্তর্জাতিক কৃষ্ণ ভাবনামৃত সংঘ (ইসকন) রথযাত্রা উপলক্ষে ৯ দিনব্যাপী অনুষ্ঠানের আয়োজন করেছে। তবে প্রতিবারের মতো এবারও দেশের সবচেয়ে বড় রথযাত্রা উৎসব অনুষ্ঠিত হচ্ছে মানিকগঞ্জের ধামরাইয়ে।

গেল ১ জুলাই গুলশানের হলি আর্টিসান রেস্তোঁরায় সন্ত্রাসীয় হামলা চালিয়ে ২০ জনকে হত্যা করে জঙ্গিরা। এই হামলার দায় স্বীকার করেছে আইএস। জঙ্গিদের মোকাবিলায় নিহত হয়েছেন দুই পুলিশ সদস্যও। পরে সেনা অভিযানে নিহত হন ছয় হামলাকারী।

বিভিন্ন আনুষ্ঠানিকতার মধ্য দিয়ে শুরু হবে রথযাত্রার অনুষ্ঠানমালা। এর মধ্যে রয়েছে হরিনাম সংকীর্তন, বিশ্ব শান্তি ও মঙ্গল কামনায় অগ্নিহোত্র যজ্ঞ, মহাপ্রসাদ বিতরণ, আলোচনা সভা, পদাবলি কীর্তন, আরতি কীর্তন, ভাগবত কথা, সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান, শ্রীমদ্ভাগবত গীতা পাঠ, ধর্মীয় চলচ্চিত্র প্রদর্শন ও ধর্মীয় নাটক মঞ্চায়ন।

এদিকে রথযাত্রা উপলক্ষে হিন্দু বৌদ্ধ খ্রিষ্টান ঐক্য পরিষদের নেতারা সর্বস্তরের মানুষকে শুভেচ্ছা জানিয়েছেন।

এ ছাড়া রাজধানীর অন্যান্য মন্দিরসহ দেশের বিভিন্ন মন্দিরেও রথযাত্রা উৎসব অনুষ্ঠিত হবে। ঢাকামেট্রোপলিটন পুলিশের (ডিএমপি) ট্রাফিক বিভাগ রথযাত্রা অনুষ্ঠান নির্বিঘ্ন করার স্বার্থে ওই সময় বিকল্প সড়কে যানবাহন চলাচলের জন্য অনুরোধ জানিয়েছে। রথযাত্রা চলাকালে আইনশৃঙ্খলা রক্ষায় সবার সহযোগিতাও কামনা করেছে ঢাকা মেট্টোপলিট্টন পুলিশ(ডিএমপি)।