মেইন ম্যেনু

রপ্তানি আয়ে অগ্রগতি

গত নভেম্বরে দেশে রপ্তানি আয় বেড়েছে। এ মাসে রপ্তানি আয় হয়েছে ২৭৪ কোটি ৯৩ লাখ ডলার। গত বছরের একই সময়ের তুলনায় এ আয় বেড়েছে ১৩ দশমিক ৭৩ শতাংশ। আর চলতি বছরের অক্টোবরের চেয়ে নভেম্বরে আয় ১৫ দশমিক ৯৩ শতাংশ বেড়েছে।

রোববার রপ্তানি উন্নয়ন ব্যুরোর (ইপিবি) নভেম্বর মাসের হালনাগাদ প্রতিবেদনে এ তথ্য উঠে এসেছে।

প্রতিবেদনে জানানো হয়েছে, ২০১৫ সালের নভেম্বরে রপ্তানি আয়ের কৌশলগত লক্ষ্যমাত্রা নির্ধারণ করা হয়েছিল ২৩৫ কোটি ৬০ লাখ ডলার। সেখানে লক্ষ্যমাত্রার চেয়ে ১৬ দশমিক ৭০ শতাংশ বেশি আয় হয়েছে।

চলতি অর্থবছরের প্রথম পাঁচ মাসে বাংলাদেশ পণ্য রপ্তানি করে এক হাজার ২৮৮ কোটি ডলার আয় করেছে যা গত অর্থবছরের একই সময়ের চেয়ে ৬ দশমিক ৭১ শতাংশ বেশি।

চলতি ২০১৫-১৬ অর্থবছরের জুলাই-নভেম্বর সময়ে এক হাজার ২৮৭ কোটি ৯০ লাখ ডলার লক্ষ্যমাত্রার বিপরীতে বাংলাদেশ এক হাজার ২৮৭ কোটি ৯৮ লাখ ৩০ হাজার ডলারের পণ্য রপ্তানি করেছে।

গত অর্থবছরে এই পাঁচ মাসে রপ্তানি থেকে আয় হয়েছিল এক হাজার ২০৭ কোটি ডলার। এই হিসেবে পাঁচ মাসের লক্ষ্যমাত্রার চেয়ে শূন্য দশমিক ০১ শতাংশ বেশি আয় দেশে এসেছে। এই সময়ে সবচেয়ে বেশি আয় হয়েছে নিট পোশাক রপ্তানি থেকে, ৫২৩ কোটি ৬৭ লাখ ৩০ হাজার ডলার। ওভেন পোশাক থেকে এসেছে ৫২২ কোটি ৬০ লাখ ৩০ হাজার ডলার।

তথ্য বিশ্লেষণে দেখা যায়, এই সময়ে নিট পোশাক রপ্তানিতে প্রবৃদ্ধি হয়েছে ৪ দশমিক ৭৮ শতাংশ। ওভেনে প্রবৃদ্ধি আরও বেশি, ১১ দশমিক ৩৫ শতাংশ। নিট পোশাক রপ্তানিতে লক্ষ্যমাত্রার চেয়ে ২ দশমিক ৬৮ শতাংশ বেশি আয় হয়েছে।