মেইন ম্যেনু

রাউজানে গৃহবধুকে মুখে বিষ ঢেলে হত্যা

কে.এম জাহেদ, চট্টগ্রাম থেকে : হাতের মেহেদী রং না যেতেই ঝড়ে পড়ল গৃহবধুর জীবন। বিয়ের পিড়িতে বসেছিল মাত্র ৫ মাস আগে। বিয়ের আনন্দ না মুছতেই মঙ্গরবার সকালে চট্টগ্রামের রাউজান উপজেলার চিকদাইরের রুবি দে (২২) নামের এক গৃহবধূূকে মুখে বিষ দিয়ে হত্যা করার অভিযোগ পাওয়া গেছে।

পরিবারের অভিযোগ বলেন, স্বর্নের চেইন ও জামাই ভাতা না খাওয়ায় নির্যাতন করে মেয়েকে হত্যা করা হয়েছে। তবে স্বামী ও পরিবারের দাবি, অকারণে রুবি বিষপান করে আত্মহত্যা করেছে।

নিহত রুবি উপজেলার ডাবুয়া কলমপতি গ্রামের পুরাতন কেরানীর বাড়ির নোনা দে’র ছোট মেয়ে। ৫ মাস আগে উপজেলার চিকদাইর ইউনিয়নের পালপাড়া গ্রামের মৃত সুরেন্দ্র লালের ছেলে টিটু’র সাথে বিয়ে হয়েছিল।

চিকদাইর ইউপি’র নবনির্বাচিত চেয়ারম্যান প্রিয়তোষ চৌধুরী জনান, ৩১ মে মঙ্গলবার ভোরে বিষপান অবস্থায় পরিবার ও প্রতিবেশীরা উদ্ধার করে। পরে রুবি দে’কে চট্টগ্রাম মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করা হলে কর্তব্যরত ডাক্তার তাকে মৃত ঘোষণা করেন।

রাউজান থানার ওসি কেফায়েত উল্লাহ জনান, ময়না তদন্তের পর সন্ধ্যায় নিহতের লাশ স্বামীর বাড়িতে নিয়ে আসা হয়। তবে এ ঘটনাটি আত্মহত্যা নয়, বরং হত্যা বলে দাবি করেছেন নিহত রুবির পরিবারের লোকজন।

নিহতের বড় ভাই সুজন দে জানান, স্বর্নের চেইন ও ভাতা খাওয়া। কিন্ত রুবি’র বাবার সেই সামর্থ না থাকায় বিয়ের ৫ মাসেও টিটু’র যৌতুকের দাবি মেটাতে পারেনি। এই নিয়ে সব সময় বুবিকে বকাঝকা, মারধর করতো। গত রবিবার রাতেও স্বামী টিটু ও তার বড় বৌদি শিল্পী রুবিকে মারধর করে এক পর্যায়ে হত্যা করে মুখে বিষ ঢেলে দেয়া।