মেইন ম্যেনু

রাগ কমানোর সহজ উপায় জেনে নিন

সময়ে-অসময়ে আমরা সবাই একটু-আধটু রেগে যাই৷ প্রবাদে আছে ‘রেগে গেলেন তো হেরে গেলেন’ তবে রাগ যদি বাড়াবাড়ি পর্যায়ে চলে যায়, তা মোটেই ভালো নয়৷ রাগ নিয়ন্ত্রণ করাও খুব একটা কঠিন নয়৷ কারণ পুরোটাই আপনার হাতে৷ রাগ নিয়ন্ত্রণের উপায়:

১. কোনও সমস্যা দেখা দিলে, যদি তা সহজে সমাধান না হয়, তাহলে সবার আগে মাথা ঠাণ্ডা রাখার চেষ্টা করুন৷ রাগের মাথায় ভুল সিদ্ধান্ত নিয়ে ফেলতে পারেন৷ তাতে সমস্যা আরও বাড়তে পারে৷ বরং ঠাণ্ডা মাথায় সমস্যার সমাধানের রাস্তাগুলো ভাবুন৷ বা কারও সঙ্গে কোনও বিষয়ে মতের অমিল হলেও তার উপর রেগে ভালোমন্দ কথা না বলে, তার সঙ্গে মনোমালিন্যের বিষয় নিয়ে আলোচনা করুন৷

২. রাগের মাথায় কাউকে কোনও কথা বলার আগে একবার ভাবুন৷ রাগের মাথায় খারাপ কথা বলে পরে অনুশোচনা করবেন না। অনেক সময় এর ফলে আমাদের প্রিয়জনের সঙ্গে সম্পর্ক নষ্ট হয়ে যেতে পারে৷ তাই কিছু বলে ফেলার আগেই রাগ নিয়ন্ত্রণ করুন৷ হয় মাথা ঠাণ্ডা রেখে, ধৈর্য ধরে কথা বলুন, না হয় এই বিষয়ে পাল্টা কিছু বলতে হলে একটু সময় নিন। আপনার রাগ হয়েছে, সেই ব্যাপারটা শান্ত ভাবে থেকেও বুঝিয়ে দেওয়া যায়৷

৩. আপনার রাগ যদি বাড়াবাড়ির পর্যায়ে চলে যায়, তবে কাউন্সেলিং- এর কথা ভাবতে পারেন৷ সঠিক কাউন্সেলিং এর সাহায্যে অ্যাঙ্গার ম্যানেজমেন্ট করতে সুবিধা হবে৷ তাছাড়া নিয়মিত ওয়ার্ক আউট করুন৷ খেয়াল করে দেখুন আমাদের রাগের কারণ আসলে স্ট্রেস৷ নিয়মিত শরীর চর্চা করলে সহজেই স্ট্রেসড হয়ে পড়ার আশঙ্কা কম৷ তাই এবার থেকে যখনই রেগে যাবেন, একটু রাস্তায় বেরিয়ে হেঁটে আসুন৷ খানিক পরে দেখবেন, রাগ অনেকটাই কমে গিয়েছে৷ মিউজিকও রাগ কমিয়ে দিতে পারে৷

৪. রাগ হলে অন্যের দোষ না দেখে একটু বিষয়টি নিরপেক্ষ ভাবে দেখার চেষ্টা করুন৷ আপনার নিজের দোষটা চোখে পড়বে তাহলে৷ তাতে অপর ব্যক্তির প্রতি আর ততটা রাগ হবে না৷ কারোর সঙ্গে কোনও সমস্যা হলে তা মিটিয়ে নিন৷ রাগ পুষে রাখলে আপনারই ক্ষতি৷

৫. যদি কারও উপর রাগ হয় তাহলে নিজেকে নিয়ন্ত্রণ করুন৷ কথা কাটাকাটির কোনও পরিবেশ তৈরি হওয়ার আগেই, হালকা ঠাট্টা বা প্রসঙ্গ ঘুরিয়ে দিন৷ তাতে পরিস্থিতি অনেকটাই সহজ হয়ে যাবে৷