মেইন ম্যেনু

রাজধানীতে নারী পুলিশকে ‘গণধর্ষণ’

রাজধানীর খিলগাঁওয়ের তিলপাপাড়ায় তুরাগ থানার এক নারী কনস্টেবল গণধর্ষণের শিকার হয়েছেন বলে অভিযোগ করেছেন। বুধবার রাতে তিলপাপাড়ার একটি বাসায় তাকে ধর্ষণ করা হয়।

শনিবার দুপুর দুইটার দিকে ধর্ষণের অভিযোগ আনা ওই নারী পুলিশ সদস্যকে ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের ওয়ানস্টপ ক্রাইসিস সেন্টারে (ওসিসি) ভর্তি করা হয়েছে।

ওসিসির সমন্বয়কারী বিলকিস বেগম বলেন, ‘ওসিসিতে আসা নারী কনস্টেবলের কয়েকটি শারীরিক পরীক্ষা করা হয়েছে। আগামীকাল তার ফরেনসিক পরীক্ষা করা হবে।’

ঘটনার শিকার ওই নারী কনস্টেবল জানান, ২০১১ সালে খিলগাঁও থানার সাবেক সহকারী উপ-পরিদর্শক (এএসআই) কালিমুর রহমানের সঙ্গে তার বিয়ে হয়। ২০১৪ সালে তাদের বিচ্ছেদ হয়। তার সাবেক স্বামী কালিমুর রহমান বুধবার রাতে তাকে ডেকে খিলগাঁওয়ের তিলপাপাড়ার একটি বাসায় নিয়ে যান। সেখানে কালিমুর রহমানসহ আরও কয়েকজন মিলে সারারাত তাকে ধর্ষণ করেন।

তিনি আরও জানান, বৃহস্পতিবার সকালে কৌশলে তিনি ওই বাসা থেকে বের হয়ে খিলগাঁও এলাকায় তার এক আত্মীয়ের বাসায় ওঠেন। সেখান থেকে শুক্রবার তিনি রাজারবাগ পুলিশ লাইন হাসপাতালে ভর্তি হন। এরপর শনিবার ঢামেক হাসপাতালে আসেন।

খিলগাঁও থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মুস্তাফিজ ভূঁইয়া জানান, তাদের মধ্যে বিয়ে ও বিচ্ছেদের ঘটনা হয়েছে বলে জানতাম। কিন্তু এই ধর্ষণের ঘটনা জানা ছিল না।

তিনি জানান, খিলগাঁও থানায় দায়িত্বপালনে থাকা এএসআই কালিমুর রহমান বর্তমানে স্পেশাল পুলিশ ব্যাটালিয়ন (এসপিবিএন) এ কর্মরত আছেন।

এ ব্যাপারে কালিমুরের বক্তব্য পাওয়া যায়নি।