মেইন ম্যেনু

রাজধানীতে পৃথক ঘটনায় নিহত ৬

রাজধানীতে পৃথক ঘটনায় ছয়জন নিহত হয়েছে। শনিবার রাত ও রোববারা সকালে বনানী, আসাদগেট, শাহবাগ, ফকিরাপুল, যাত্রাবাড়ী ও তেজগাঁওয়ে এসব মৃতুর ঘটনা ঘটে।

পুলিশ সূত্রে জানা গেছে, বনানী সৈনিক ক্লাবের সামনে রোববার সকালে রাস্তা পার হওয়ার সময় সুমন নামের এক ব্যক্তি নিহত হয়েছে।

নিহতের চাচা সিরাজুল জানান, বিদেশ যাওয়ার জন্য মেডিকেল পরীক্ষা করাতে ঢাকায় এসেছিল সুমন। রোববার সকাল সাড়ে ৬টার দিকে সৈনিক ক্লাবের সামনে রাস্তা পার হওয়ার সময় একটি গাড়ি তাকে ধাক্কা দেয়। এতে সে মারাত্মক আহত হয়। পরে তাকে উদ্ধার করে ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে নিয়ে গেলে কর্তব্যরত চিকিৎসক সুমনকে মৃত ঘোষণা করেন।

বনানী থানার উপ-পরিদর্শক (এসআই) রেজাউল ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করেছেন।

এদিকে যাত্রাবাড়ীতে কাভার্ডভ্যানের ধাক্কায় অজ্ঞাত এক ব্যক্তি মারা গেছে। শনিবার রাত সাড়ে ১২টার দিকে শনিরআখড়া ইউনাইটেড ও রানা পেট্রোল পাম্পের মধ্যবর্তী স্থানে এ দুর্ঘটনা ঘটে।

যাত্রাবাড়ীর থানার উপ-পরিদর্শক (এসআই) নজরুল ইসলাম জানান, গতকাল রাতে একটি কাভার্ডভ্যান ওই ব্যক্তিকে ধাক্কা দিলে সে গুরুতর আহত হয়। পরে তাকে উদ্ধার করে ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসাপাতালে নেয়া হলে কর্তব্যরত চিকিৎসক তাকে মৃত ঘোষণা করেন। তবে এ রিপোর্ট লেখা পর্যন্ত নিহতের কোনো পরিচয় জানা যায়নি।

অপরদিকে আসাদগেটে আড়ংয়ের সামনে শনিবার রাত সাড়ে ১২টার দিকে লেগুনার ধাক্কায় এক নিরাপত্তকর্মী নিহত হয়েছে। নিহত রফিকুল ইসলাম (৫০) রংপুর পীরগাছার সিরাজুল ইসলামের ছেলে।

নিহতের আত্মীয় জাহাঙ্গীর আলম জানান, আসাদগেট আড়ংয়ের সামনে রক্তাক্ত অবস্থায় পড়ে ছিলো রফিক। সেখান থেকে উদ্ধার করে ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে নেয়া হলে কর্তব্যরত চিকিৎসক তাকে মৃত ঘোষণা করেন।

তার অভিযোগ, রফিকুলকে পিটিয়ে হত্যা করা হয়েছে। তবে পুলিশ জানিয়েছে, লেগুনার ধাক্কায় রফিকুলের মৃত্যু হয়েছে।

এছাড়া রাজধানীর শাহবাগ মোড়ে সড়ক দুর্ঘটনায় হাজি রমজান আলী (৭০) নামের এক ব্যক্তি নিহত হয়েছে। রোববার সকাল সাড়ে ৭টার দিকে শিকড় পরিবহনের একটি বাস তাকে চাপা দিলে ঘটনাস্থলেই সে মারা যায়।

নিহতের ছেলে রুবেল জানান, তার বাবা সকালে হাঁটার জন্য বের হয়েছিলেন। সকালে শাহবাগ এলাকায় যাত্রীবাহী একটি বাস তার বাবাকে চাপা দেয়। এতে তিনি ঘটনাস্থলেই মারা যান।

হাজি রমজান আলী লালবাগের আব্দুল আজিজ লেনের ৩৯/১ নম্বর বাসায় ভাড়া থাকতেন।

রাজধানীর ফকিরাপুলে শাফাত উল্লাহ লেনে সৌরভ লেমেনিটিং প্রেসে এক ব্যক্তির রহস্যজনক মৃত্যু হয়ছে।

প্রেসের সহকর্মীরা জানান, রোববার ভোরে শাফাত রক্তাক্ত অবস্থায় পড়েছিল। পরে উদ্ধার করে ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে নেয়া হলে কর্তব্যরত চিকিৎসক তাকে মৃত ঘোষণা করেন।

তারা আরো জানান, কাগজের বান্ডেল পড়ে শাফাত উল্লাহর মৃত্যু হয়েছে। তবে ময়নাতদন্তের পর জানা যাবে প্রকৃত ঘটনা।

তেজগাঁওয়ে প্রেমে ব্যর্থ হয়ে নাজমুল হোসেন (১৮) নামে এক কিশোর বিষপান করে আত্মহত্যা করেছে। নিহতের বাবার নাম আনসার আলী। তিনি মহাখালী সাততলা বস্তিতে থাকেন।

বনানী থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) ভূইয়া মাহবুব হাসান জানিয়েছেন, নাজমুল গার্মেন্টে কাজ করতো। প্রেমে ব্যর্থ হয়ে সে আত্মহত্যা করেছে বলে প্রাথমিকভাবে জানা গেছে।