মেইন ম্যেনু

রাজধানীতে শিলাবৃষ্টির সঙ্গে ঝড়ো হাওয়া (দেখুন ছবিতে)

প্রবল বর্ষণসহ মৌসুমের প্রথম ঝড় হওয়া বয়ে গেল রাজধানী ঢাকার ওপর দিয়ে। বুধবার সকাল থেকেই আকাশ ছিল মেঘলা । রাতেও এক পশলা বৃষ্টি বয়ে যায় ঢাকায়। আজ বুধবার সকাল সাড়ে ১১টার দিকে রাজধানীর আকাশ ঘোর অন্ধকারে ঢেকে যায়। এরপর শুরু হয় ঝড়ো হাওয়ার সঙ্গে শিলাবৃষ্টি। অল্প সময়ের জন্য হযে যাওয়া বর্ষণে মানুষের জীবন যাত্রা হঠাৎ থমকে দাঁড়ায়।রাজধানীর কোথাও কোথাও পানি জমে যায়।তবে বৃষ্টি শেষ হওয়ার পর পরই রাজধানী ঢাকা রোদের আলোতে ঢেকে যায়।ঝড়ো হাওয়ার কারনে রাজধানীর অনেক স্থানে রাস্তার ওপর গাছ ভেঙ্গে পড়েছে।রাজধানীর কাকরাইল মোড়ে প্রধান বিচারপতির বাসভবনের সামনে রাস্তার ওপর গাছ উপড়ে পড়লে এ পথে যানচলাচলে বিঘ্ন সৃষ্টি হচ্ছে।

bristi5

আবহাওয়া অফিস জানিয়েছে, গতকাল মঙ্গলবার রাতে দেশের বিভিন্ন জায়গায় বৃষ্টি হয়েছে। দেশের দক্ষিণ বিভাগীয় অঞ্চল খুলনায় কয়েক ঘণ্টা ধরে দমকা হাওয়া ও মুষলধারে বজ্রবৃষ্টি হয়েছে। এছাড়া কুমিল্লা, সীতাকুণ্ডু, পটুয়াখালী, বরিশাল ও ভোলাসহ দেশের অনেক জায়গায় ঝড় ও বৃষ্টিপাতের খবর পাওয়া গেছে।

রাজধানী ঢাকাতেও গতকাল গভীর রাতে বৃষ্টি হয়েছে। বুধবার সকালের আবহাওয়া ভালোই ছিল। কিন্তু সকাল ১০ টার দিকে আকাশ মেঘাচ্ছন্ন হতে থাকে।এর কিছুক্ষণ পরেই রাজধানীর আকাশ অন্ধকারে ঢেকে যায়। বেলা সাড়ে ১১ টার দিকে শুরু হয় দমকা হাওয়া, সেই সঙ্গে মুষলধারে বৃষ্টি। শুধু বৃষ্টি নয় রীতিমত শিলাবৃষ্টি। এর স্থায়িত্ব ছিল প্রায় ২০ মিনিটি।

bristi3

রাজধানীর ধানমন্ডি, উত্তরা, রামপুরা, গুলশান, খিলগাঁও, মুগদা, ডেমরাসহ বিভিন্ন স্থানে শিলাবৃষ্টির খবর পাওয়া গেছে।

রাতের বৃষ্টিতে নগরীতে কিছুটা শীত ফিরে এসেছে। ভ্যাপসা গরমের পর এ বৃষ্টিধারা নাগরিক জীবনে বুলিয়ে দিয়েছে শীতল পরশ। তবে সকালের ঝড়ো বৃষ্টিতে দুর্ভোগে পড়ে পথচারী ও ফুটপাতের ব্যবসায়ীরা। শহরের অনেক স্থানে সৃষ্টি হয় কিছুটা জলাবদ্ধতা।

bristi2

আবহাওয়ার পূর্বাবাস অনুযায়ী বুধ ও বৃহস্পতিবার দেশের অধিকাংশ স্থানে মাঝারি থেকে বজ্রসহ বৃষ্টিপাত হওয়ার কথা বলা হয়েছিলো। শুষ্ক আবহাওয়ার এই মৌসুমে এমন মুষলধারে বৃষ্টি এই প্রথম হলো।

আবহাওয়া অধিদপ্তর সূত্রে জানা গেছে, পূবালী লঘুর বর্ধিতাংশ পশ্চিমবঙ্গ হয়ে উত্তর বঙ্গোপসাগর পর্যন্ত বিস্তৃত হওয়ার কারণেই বৃষ্টি হয়েছে। বৃহস্পতিবারও মাঝারি থেকে ভারী বৃষ্টিপাত হতে পারে।

bristi1

আবহাওয়ার পূর্বাভাসে বলা হয়েছে, ঢাকা, চট্টগ্রাম, সিলেট, খুলনা ও বরিশাল বিভাগের প্রায় সব স্থানে এবং রাজশাহী ও রংপুরের কিছু কিছু স্থানে অস্থায়ী দমকা বা ঝড়ো হাওয়াসহ মাঝারি থেকে মাঝারি ধরনের ভারী বৃষ্টি ও বজ্রবৃষ্টি হতে পারে। এক্ষেত্রে ২২ থেকে ৪৪ মিলিমিটার পর্যন্ত বৃষ্টিপাত হতে পারে বলে ধারণা করা হচ্ছে।

এ সময়ে মধ্যরাত থেকে সকাল পর্যন্ত দেশের নদী অববাহিকায় হালকা কুয়াশা থাকতে পারে। এছাড়া প্রথম দিকে সারাদেশে দিন ও রাতের তাপমাত্রা সামান্য হ্রাস এবং শেষের দিকে দিন ও রাতের তাপমাত্রা সামান্য বৃদ্ধি পেতে পারে।

bristi

বুধ ও বৃহস্পতিবার যে মাঝারি থেকে ভারী বৃষ্টিপাত হবে তাতে কৃষির ওপর কিছুটা প্রভাব পড়ার আশঙ্কা রয়েছে। তবে এ বৃষ্টি কিছু ফসলের উপকারে আসবে, আবার এতে কিছু ফসলের ক্ষতি হবে।