মেইন ম্যেনু

রাজশাহীতে জঙ্গি নারীর হামলার ভিডিও

রাজশাহীর গোদাগাড়ীতে সন্দেহভাজন জঙ্গি আস্তানায় অভিযানের সময় জঙ্গি পরিবারের এক সদস্য ধারালো অস্ত্র নিয়ে পুলিশ ও ফায়ার সার্ভিস কর্মীদের ওপর ঝাঁপিয়ে পড়েন। ফায়ার সার্ভিসের এক কর্মীকে তার উপর্যপুরি কোপানোর দৃশ্যের ছবিও তুলেছেন গণমাধ্যম কর্মীরা। পাঠকদের জন্য তা তুলে দেয়া হল। এই ভিডিওতে এমন দৃশ্য আছে যা অপ্রাপ্তবয়স্ক বা হৃদরোগে আক্রান্তদের জন্য ক্ষতিকর হতে পারে। তাদেরকে ভিডিওটি না দেখার অনুরোধ করা হচ্ছে।খবর ঢাকাটাইসের।

গোদাগাড়ী উপজেলার মাটিকাটা ইউনিয়নের হাবাসপুর মাছমারা বেনীপুর গ্রামে সন্দেহভাজন জঙ্গি আস্তানায় ভোরে অভিযানে যায় পুলিশ। এ সময় তাদেরকে আত্মসমর্পণের আহ্বান জানায় বহিনীটি। তা উপেক্ষা করে বাড়ির ভেতর থেকে বের হয়ে এসে পুলিশ ও ফায়ার সার্ভিসের কর্মীদের ওপর হামলা করে সন্দেহভাজন জঙ্গিরা।

মোট এক মিনির পাঁচ সেকেন্ডের এই ভিডিওটি এরই মধ্যে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ছড়িয়ে পড়েছে। এতে দেখা যায়, পুলিশের মাইকে আত্মসমর্পণের আহ্বান উপেক্ষা করে বাইরে এসে হামলা চালায় ওই পরিবারের সদস্যরা। এ সময় এক নারীকে অস্ত্র হাতে দৌঁড়ে আসতে দেখা যায়। তিনি পরে ফসলের মাঠে একজনকে উন্মত্তের মত কোপাতে থাকেন।

এ সময় আশেপাশে পুলিশ থাকলেও তারা প্রাণভয়ে ভীত হয়ে পড়েন। বিভ্রান্ত হয়ে ছুটোছুটি করতে থাকেন তারা।

পুলিশ জানিয়েছে, এই হামলার পর সন্দেহভাজন জঙ্গিরা আত্মঘাতী বিস্ফোরণ ঘটায়। এতে পাঁচ জন নিহত হয় যারা সবাই সন্দেহভাজন জঙ্গি বলে জানিয়েছে পুলিশ। আর পরিবারের আরও একজন নারী আত্মসমর্পণ করেন। নিহতদের মধ্যে একজন ওই নারীর বাবা।

ভিডিওটি দেখতে এখানে ক্লিক করুন






মন্তব্য চালু নেই