মেইন ম্যেনু

রাজশাহী নগরীতে পুলিশের বাড়িতে ডাকাতি

সরকার দুলাল মাহবুব, রাজশাহী থেকে : রাজশাহী মহানগরীর বুধপাড়া এলাকায় এক পুলিশ সদস্যের বাড়িতে ঢুকে অস্ত্রের মুখে জিম্মি করে লক্ষাধিক টাকা ও স্বর্ণালংকার লুট করেছে এক দল ডাকাত। মঙ্গলবার দিনগত রাত দেড়টার দিকে এ ঘটনা ঘটে।

ভুক্তভোগী পুলিশ সদস্যের বাবা মুনিরুল ইসলাম জানান, পরিবারের সাবাই তখন ঘুমে আচ্ছন্ন ছিলো। গভীর রাতে বাড়ির প্রধান গেটের গ্রিল কেটে মুখোশ ও আন্ডার ওয়্যার পরা ১২ থেকে ১৩ জনের একদল ডাকাত বাড়িতে ঢুকে। তখনো পরিবারের অন্যান্য সদস্যরা গভীর ঘুমে আচ্ছন্ন। প্রথমে ডাকাতরা তার এক ছেলেকে ধরে মাথায় পিস্তল ঠেকিয়ে হাত ও চোখ দড়ি দিয়ে বেঁেধ ফেলে।

এর পর পরিবারের অন্যান্য সদস্যদের একে একে হাত পা ও চোখ বেধেঁ পিস্তল ও দেশিয় অস্ত্র ঠেকিয়ে সবার মোবাইল ফোন কেড়ে নেয়। বাড়িতে টাকা পয়সা, অলংকার যা আছে দিয়ে দিতে বলে। না দিলে জানে মেরে ফেলার হুমকি দেয়।

ভুক্তভোগী আরো জানান, ওই সময় তাদের হাতে হাসুয়া, পিস্তল ও দেশিয় ধারালো অস্ত্র ছিলো। আমারা তাদের বলি, বাসায় যা আছে নিয়ে নেন কিন্তু আমাদের কোন ক্ষতি করেন না।এ সময় ডাকতরা প্রায় লক্ষাধিক টাকা, সাড়ে চার ভরি স্বর্ণালংকার, চারটি মোবাইল ফোন নিয়ে যায়। এছাড়া বাসার মূল্যবান আসবাবপত্র ভাঙ্গচুর করে। তারা চলে যাওয়ার পর তার মেজো ছেলে নিজের বাঁধা হাত মুখ দিয়ে খুলে নেন।

এর পর সে পরিবারের সবার বাঁধা হাত খুলে দেয়। পরে তার ডিউটিরত পুলিশ ছেলেকে পাশের বাড়ির মোবাইল ফোন থেকে ঘটনাটি জানায়। পুলিশ সদস্য শাহিন আক্তার জানান, ঘটনার সময় রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়ে তিনি ডিউটিতে ছিলেন। রাত দুইটার দিকে তিনি জানতে পারেন যে তাদের বাড়িতে ডাকাতির ঘটনা ঘটেছে। ঘটনার পরে রাতেই মতিহার থানার অফিসার ইনচার্জ ওসি হুময়ন কবির ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেছেন বলে জানান তিনি। ওসি আরো জানান এ ঘটনায় থানায় একটি মামলা হয়েছে।