মেইন ম্যেনু

রাজশাহী পুঠিয়ায় দুই গ্রামের সংঘর্ষে আহত ২০, বাড়িতে অগ্নিসংযোগ

সরকার দুলাল মাহবুব, রাজশাহী থেকে : গাঁজা সেবনে বাধা দেয়াকে কেন্দ্র করে রাজশাহীর পুঠিয়ার বেলপুকুর এলাকায় দুই গ্রামবাসীর মধ্যে সংঘর্ষের ঘটনা ঘটেছে। রোববার রাত সাড়ে ৮টার দিকে এ সংঘর্ষ শুরু হয়। উপজেলার জামিরা ও জোতসাকিরাতপুর গ্রামের মধ্যে ওই সংঘর্ষের ঘটনা ঘটে।

এ সময় জামিরা গ্রামের ৮ থেকে ১০টি বাড়িতে আগুন এবং ২টি দোকান ভাঙচুর করার ঘটনা ঘটেছে। সংঘর্ষে অন্তত ২০ জন আহতের খবর পাওয়া গেছে।

স্থানীয়রা জানায়, শনিবার জতসাকিরাতপুর এলাকার এক যুবক জামিরা এলাকায় গিয়ে গাঁজা সেবন করছিলো। এ সময় জামিরার লোকজন ওই যুবককে গাঁজা সেবন করতে নিষেধ করে। এ ঘটনার জেরে জতসাকিরাতপুর এলাকার লোকজন জামিরা এলাকার লোকজনকে মারধর করে।

এ ঘটনার জেরে রোববার জামিরা এলাকার লোকজন জতসাকিরাপুর এলাকার লোকজনকে মারধর করলে দুই পক্ষের মধ্যে সংঘর্ষ বেধে যায়। রাত সাড়ে ৮টা থেকে রাত সাড়ে ৯টা পর্যন্ত এ সংঘর্ষ চলে। সংঘর্ষ চলাকালে এ সময় জামিরা গ্রামের ১৫টি বাড়িতে আগুণ দিয়েছে প্রতিপক্ষ জতসাকিরাতপুর গ্রামের লোকজন।

এতে আটটি বাড়ি পুরো ভুস্মিভূত হয়েছে। এছাড়াও আরো দুইটি দোকানে ভাঙচুর ও লুটপাট চালায় তারা। এ সংঘর্ষে অন্তত ২০ জন আহতের খবর পাওয়া গেছে।

আহতদের মধ্যে ইউনুস (৩০) নামে জামিরা গ্রামের এক ব্যক্তিকে গুরুতর আহত অবস্থায় রাজশাহী মেডিকেল কলেজ (রামেক) হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। অন্যদের পুঠিয়া স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করা হয়েছে। সংবাদ পেয়ে পুলিশ ঘটনাস্থলে উপস্থিত হয়ে ঘণ্টাব্যাপি চেষ্টা করে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণ করে। ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেছেন সার্কেল এসপি আসলাম আলী।

পুঠিয়া থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) হাফিজুর রহমান বলেন, পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে অতিরিক্ত পুলিশ মোতায়েন করা হয়েছে।