মেইন ম্যেনু

রাণীনগরে গৃহবধুকে পিটিয়ে হত্যার অভিযোগে মামলা ॥ গ্রেফতার-২

নওগাঁর রাণীনগরে গৃহবধুকে পিটিয়ে হত্যার অভিযোগে রানীনগর থানায় ৭জনকে আসামী করে একটি হত্যা মামলা দায়ের করা হয়েছে।

নিহত হতভাগী গৃহবধু জান্নাতুন নাঈম (২৩) কে গত বুধবার রাতে স্বামী আলমগীর ও তার শ্বশুর বাড়ির লোকজন পরিকল্পিত ভাবে তাকে পিটিয়ে হত্যা করে।

এঘটনার সাথে জড়িত থাকার অভিযোগে পুলিশ এজাহার নামীয় দুই জন আসামীকে গ্রেফতার করেছে। গ্রেফতারকৃতরা হলেন, মুন্জু আরা (২৫), মিনা বেগম (৩০)।

জানা গেছে, উপজেলার কাশিমপুর ইউপির চকাদিন পূর্ব পাড়া গ্রামের মৃত তালেব উদ্দিনের ছেলে আলমগীর হোসেন (৩০) গত ২ বছর আগে দেড় লাখ টাকা যৌতুক নিয়ে ত্রিমোহনী-চকাদিন পাড়া গ্রামের সৌদি প্রবাসী দাদন হোসেনের মেয়ে জান্নাতুন নাঈম কে বিয়ে করে। এরই মধ্যেই তাদের ঘড়ে জম্ম নেয় হোসাইন নামের একটি ফুটফুটে সন্তান। যৌতুকের এই পরিমান টাকা সন্তোষ জনক না হাওয়ায় আলমগীর তার স্ত্রীর উপর বিয়ের পর থেকেই কারণে-অকারণে বাবার বাড়ি থেকে টাকা নিয়ে আসার জন্য প্রায়ই জান্নাতুনকে বেদম মারপিট করতো। এই বিষয়গুলো নিয়ে উভয় পক্ষের মধ্যে কয়েক বার বৈঠক হলেও স্থায়ী কোন সমাধান না হওয়ায় ।

কিছু দিন আগে জান্নাতুনের বাবা সৌদি থেকে ছুটিতে দেশে আসলে ঘাতক আলমগীর কৌশল পাতিয়ে মারপিটের মাত্রা বাড়িয়ে দেয়। মেয়ের সংসারে শান্তি বিরাজ করবে এমনটা ভেবে জামাইকে সৌদি গিয়ে টাকা পাঠিয়ে দেওয়ার কথা বলে সৌদিতে চলে যান। কিন্তু এক মাস অতিবাহিত হয়ে গেলেও সৌদি থেকে টাকা না পাঠালে ঘাতক আলমগীর ও তার পরিবার পরিকল্পিত ভাবে গত বুধবার রাতে তার স্ত্রী জান্নাতুন কে পিটিয়ে হত্যা করে তার মরদেহ ঘড়ের তীরের সাথে ওড়না দিয়ে ঝুলিয়ে রেখে ওই রাতেই বাড়ির সবাই পালিয়ে যায়।

এ ব্যাপারে রাণীনগর থানার ওসি আব্দুল্লাহ আল-মাসউদ চৌধুরী জানান, খবর পেয়ে ঘটনাস্থলে গিয়ে গৃহবধুর লাশ উদ্ধার করে ময়না তদন্তের জন্য নওগাঁ মর্গে প্রেরণ করা হয়েছে।

এ ঘটনায় গৃহবধূর ভাই আবু বক্কর সিদ্দীক বাদী হয়ে রাণীনগর থানায় স্বামী আলমগীর সহ ৭জনকে আসামী করে একটি হত্যা মামলা দায়ের করে।

এ ঘটনার সাথে জড়িত থাকার অভিযোগে আলমগীরের দ্ইু ভাবী মুন্জু আরা, মিনা বেগম নামের দ্ইু জনকে গ্রেফতার করা হয়েছে তবে স্বামী আলমগীর ও শ্বশুর পলাতক রয়েছে বলে তিনি জানান।



« (পূর্বের সংবাদ)