মেইন ম্যেনু

রাত পোহালেই খুশির ঈদ

‘ও মন রমজানেরই রোজার শেষে এল খুশির ঈদ…, হ্যাঁ রমজান শেষ। পবিত্র ঈদুল ফিতর কড়া নাড়ছে দরজায়। আজ চাঁদ উঠুক আর না উঠুক কাল ঈদ।

বাংলাদেশের আকাশে মঙ্গলবার পবিত্র শাওয়াল মাসের চাঁদ দেখা যায়নি। ফলে ঈদ হবে বৃহস্পতিবার।

ধর্মমন্ত্রী ও জাতীয় চাঁদ দেখা কমিটির সভাপতি অধ্যক্ষ মতিউর রহমানের সভাপতিত্বে মঙ্গলবার সন্ধ্যা সাড়ে ৭টায় বায়তুল মোকাররমে ইসলামিক ফাউন্ডেশনে সভাকক্ষে জাতীয় চাঁদ দেখা কমিটির সভা অনুষ্ঠিত হয়।

সভা থেকে জানানো হয়, মঙ্গলবার দেশের কোথাও চাঁদ দেখা যায়নি। ফলে বৃহস্পতিবার পবিত্র ঈদুল ফিতর উদযাপিত হবে।

এদিকে সৌদি আরবসহ মধ্যপ্রাচ্যের দেশগুলোতে বুধবার ঈদুল ফিতর উদযাপিত হয়েছে।

সৌদি আরবের সঙ্গে মিল রেখে বাংলাদেশের কয়েকটি এলাকায় বুধবার ঈদুল ফিতর উদযাপিত হয়েছে।

রমজান মাস জুড়ে রোজা পালনের মধ্য দিয়ে এখন মুসলিম সম্প্রদায় খুশির ঈদের অপেক্ষায়। স্বজনদের সঙ্গে ঈদের আনন্দ ভাগাভাগি করতে অনেকে ইতিমধ্যে পৌঁছে গেছেন গ্রামের বাড়িতে।

দীর্ঘ দিন ছুটিরে কারণে এবার মানুষের ঈদযাত্রার দুর্ভোগ খানিকটা কম। তবে শেষ সময়ে সব পোশাক কারখানা এক সঙ্গে ছুটি দেয়ায় ঢাকা থেকে উত্তরবঙ্গ ও পশ্চিমাঞ্চলের যাত্রীদের দীর্ঘ যানজটের কবলে পড়ে ভোগান্তি পোহাতে হয়। লঞ্চ টার্মিনালেও ছিল অস্বাভাবিক ভিড়।

ঈদ উৎসবের দ্বারপ্রান্তে শহর-গঞ্জ, হাট-বাজারে এখনো চলছে ঈদের কেনাকাটা। রাজধানী ঢাকার রাস্তাঘাট অনেকটাই ফাঁকা হয়ে গেছে।

পবিত্র ঈদ উপলক্ষে দৈনিক পত্রিকাগুলো বিশেষ ক্রোড়পত্র ইতোমধ্যে প্রকাশ করেছে। সরকারি-বেসরকারি টেলিভিশন চ্যানেলে চ্যানেলে প্রচারিত হবে ঈদের বিশেষ অনুষ্ঠানমালা।

হাসপাতাল, কারাগার, এতিমখানা, বৃদ্ধাশ্রম, শিশুসদনে উন্নতমানের খাবারের পরিবেশনের ব্যবস্থা থাকবে।

ঈদ উপলক্ষে রাজধানীর গুরুত্বপূর্ণ স্থাপনায় আলোকায়ন, ঈদ মোবারক খচিত পতাকা দিয়ে সড়ক দ্বীপগুলোর শোভা বর্ধন করা হয়েছে।

ঈদের দিন বঙ্গভবনে রাষ্ট্রপতি মো. আবদুল হামিদ ঈদের শুভেচ্ছা বিনিময় করবেন। গণভবনে শুভেচ্ছা জানাবেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা।

বিরোধীদলীয় নেতা রওশন এরশাদ ও জাতীয় পার্টির চেয়ারম্যান এইচ এম এরশাদ ঈদের শুভেচ্ছা বিনিময় করবেন।

বিএনপি চেয়ারপারসন খালেদা জিয়াও ঈদ শুভেচ্ছা বিনিময় করবেন।

বরাবরের মতো এবারও হাইকোর্ট প্রাঙ্গনে জাতীয় ঈদগাহে ঈদের প্রধান জামায়াত অনুষ্ঠিত হবে। ইতিমধ্যে সব প্রস্তুতি সম্পন্ন হয়েছে।

সকাল সাড়ে ৮টায় অনুষ্ঠিতব্য ঈদের প্রধান জামাতে বায়তুল মোকাররম জাতীয় মসজিদের জ্যেষ্ঠ ইমাম হাফেজ মাওলানা মুহাম্মদ মিজানুর রহমান ইমামতি করবেন বলে ইসলামিক ফাউশনের এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে জানানো হয়েছে।

রাষ্ট্রপতি আবদুল হামিদ, সুপ্রিম কোর্টের বিচারপতি, মন্ত্রিসভার সদস্য, সংসদ সদস্য, রাজনীতিবিদসহ সব শ্রেণি পেশার মানুষ এ জামাতে অংশ নেবেন।

তবে আবহাওয়া প্রতিকূল হলে সকাল ৯টায় বায়তুল মোকাররমের জামাতই ঈদের প্রধান জামাত হবে।

পাশাপাশি বায়তুল মোকাররম জাতীয় মসজিদেও ঈদের পাঁচটি জামাত হবে। সকাল ৭টা, ৮টা, ৯টা, ১০টা এবং ১১টায় ঈদের পাঁচটি জামাত অনুষ্ঠিত হবে।

নারীদের জন্য জাতীয় ঈদগাহে নামাজ পড়ার আলাদা ব্যবস্থা রাখা হবে। এছাড়া বিদেশি রাষ্টদূত ও কূটনৈতিকদের ঈদের নামাজের জন্য আলাদা জায়গা সংরক্ষণ করা হবে।

এবারও দেশের বৃহত্তম ঈদ জামাত অনুষ্ঠিত হবে সকাল ১০টায় কিশোরগঞ্জের ঐতিহাসিক শোলাকিয়া ঈদগাহ ময়দানে। এই জামাত পরিচালনা করবেন মাওলানা ফরিদ উদ্দিন মাসউদ।

মুসলমানদের প্রধান ধর্মীয় উৎসব ঈদ উল ফিতর উপলক্ষে দেশজুড়ে নেয়া হয়েছে কঠোর নিরাপত্তা।