মেইন ম্যেনু

রানি ট্রেনে, নাতবউ হেলিকপ্টারে!

ব্রিটিশ সাম্রাজ্যের রানি দ্বিতীয় এলিজাবেথ যেখানে ট্রেন চড়েন সেখানে একই দূরত্বে যাত্রায় তার নাতবউ কেট মিডলটন ব্যবহার করেন হেলিকপ্টার। ভবিষ্যৎ রানির এই অপচয় দেখে অনেক ব্রিটিশ মর্মাহত হয়েছেন বৈকি।

ডেইলি মেইলের খবরে বলা হয়েছে, অল্প দূরত্বের যাত্রায় ডাচেস অব ক্যামব্রিজ কেট মিডলটন হেলিকপ্টার ব্যবহার করে করদাতাদের হাজার হাজার পাউন্ড নষ্ট করছেন।

লন্ডনের কেনসিংটন প্রাসাদ থেকে আনমের হলে যাওয়ার জন্য হেলিকপ্টার ব্যবহার করেন কেট। আনমের নরফোকে রানির সম্পত্তি। এখানে কেট ও প্রিন্স উইলিয়াম তাদের দুই সন্তানকে নিয়ে থাকেন।

লন্ডন থেকে নরফোকের দূরত্ব ১১০ মাইল। হেলিকপ্টার বা ট্রেন যে বাহনেই যাওয়া হোক না কেন, সময় একই লাগে- ৪৫ মিনিট। এই দূরত্বের পথ পাড়ি দিতে রানি ব্যবহার করেন ট্রেন, যারা ভাড়া মাত্র সাড়ে ৫৪ পাউন্ড। কিন্তু একই দূরত্ব হেলিকপ্টারে পাড়ি দিতে লাগে ৩ হাজার পাউন্ড। অথচ এই পরিমাণ অর্থে ট্রেনযোগে ৫৫ বার নরফোক থেকে লন্ডনে আসা যায় অথবা যাওয়া যায়।

কেট মিডলটন যে হেলিকপ্টার ব্যক্তিগত কাজে ব্যবহার করেন, তা রাষ্ট্রীয় অর্থে অর্থাৎ করদাতাদের অর্থে চলে। এই হেলিকপ্টার রানির রাষ্ট্রীয় কাজে ব্যবহারের জন্য। কিন্তু রাজপরিবারের সদস্যরাও তা ব্যবহার করে থাকে। বিষয়টি নিয়ে প্রশ্ন উঠেছে যুক্তরাজ্যে। কেন রাষ্ট্রীয় অর্থের অপচয় করছেন রাজপরিবারের সদস্যরা?