মেইন ম্যেনু

রাবিতে বাস চলাচল কমানোর প্রতিবাদে বিক্ষোভ

ইয়াজিম ইসলাম পলাশ, রাবি প্রতিনিধি: বাস চলাচল কমানো ও ডাইনিংয়ের মিলচার্জ বৃদ্ধির প্রতিবাদে রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়ে (রাবি) বিক্ষোভ মিছিল ও সমাবেশ করেছে প্রগতিশীল ছাত্রজোট।

শনিবার বেলা ১২টায় বিশ্ববিদ্যালয়ের ডিনস্ কমপ্লেক্সের পেছন থেকে মিছিলটি শুরু হয়ে টুকিটাকি চত্বরে এসে সংক্ষিপ্ত সমাবেশে মিলিত হয়।

সমাবেশে রাবি শাখা ছাত্রমৈত্রীর সভাপতি প্রদীপ মার্ডি বলেন, বাসের ট্রিপ কমানো ও মিলচার্জ বৃদ্ধি সম্পূর্ণ অযৌক্তিক। অবিলম্বে শিক্ষার্থীদের স্বার্থে বাসের চলাচল কমানো ও মিলচার্জ বৃদ্ধি বন্ধ করতে হবে।

এসময় রাবি শাখা ছাত্র ইউনিয়নের সাধারণ সম্পাদক মাহমুদুল হাসান আসিফ, সমাজতান্ত্রিক ছাত্রফ্রন্টের সভাপতি লিটন দাস, বিপ্লবী ছাত্রমৈত্রীর সাধারণ সম্পাদক দিলীপ রায় ও ছাত্র ফেডারেশনের সাংগঠনিক সম্পাদক সুমন মোড়লসহ অর্ধশতাধিক নেতাকর্মী উপস্থিত ছিলেন।

এদিকে বিশ্ববিদ্যালয়ের এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে জানানো হয়, রাবির অফিস সময় পরিবর্তন করে ১৬ জুলাই থেকে সকাল ৯টা থেকে বিকেল ৫টা পর্যন্ত করার সিদ্ধান্ত নেয়া হয়েছে। নতুন সময়সূচি অনুযায়ী বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীদের জন্য বাসগুলো ক্যাম্পাস থেকে সকাল ৮টা ৫মিনিট, সকাল ৯টা, দুপুর ১টা ৪৫মিনিট ও বিকেল ৫টা ১০মিনিটে ছেড়ে যাবে।

এছাড়া বিশ্ববিদ্যালয়ের নাড়িকেলবাড়িয়া কৃষি ইউনিটের জন্য সকাল ৮টা ৫মিনিট, সকাল ৯টা ৫মিনিট ও ১টা ৪৫ মিনিটে বিশ্ববিদ্যালয় থেকে ছেড়ে যাবে বলে। কর্মকর্তা ও কর্মচারীগণ শুধুমাত্র সকাল ৮টা ৫মিনিট, বিকেল ৫টা ১০ মিনিট ও ৫টা ১৫ মিনিটের বাসে যাতায়াত করতে পারবেন বলে বিজ্ঞপ্তিতে উল্লেখ করা হয়।

কিন্তু পূর্ববর্তী অফিস সময় অনুযায়ী অর্থাৎ ১৫ জুলাই পর্যন্ত শিক্ষার্থী ও কর্মকর্তা-কর্মচারী মিলিয়ে ৮ বার বাস চলাচল করতো।

এ বিষয়ে পরিবহন দফতরের প্রশাসক অধ্যাপক ড. মাইনুল হক বলেন, ‘পরিবর্তীত সময়সূচি অনুযায়ী সকাল ৮টা ও ৯টার বাসে শিক্ষার্থীরা ক্যাম্পাসে চলে আসবে। এদের মধ্যে যেসব শিক্ষার্থীর ক্লাস-পরীক্ষা দুপুরের মধ্যে শেষ হয়ে যাবে তারা দুপুর ১টা ৪৫ মিনিটের বাসে চলে যাবে। আর বাকীরা ক্লাস-পরীক্ষা শেষে বিকেল ৫টার বাসে চলে যাবে।’

তিনি আরও বলেন, এটা প্রশাসনিক সিদ্ধান্ত। শিক্ষার্থীদের সুবিধার্থেই বাসের সময় পরিবর্তনের সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে বলে জানান তিনি।






মন্তব্য চালু নেই