মেইন ম্যেনু

রাবি শিক্ষককে এবার খন্ড খন্ড করে হত্যার হুমকি

ইয়াজিম ইসলাম পলাশ, রাবি প্রতিনিধি : রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়ের (রাবি) সংস্কৃতিমনা শিক্ষক অধ্যাপক এএফএম রেজাউল করিম সিদ্দিকীকে জঙ্গীরা কুপিয়ে হত্যা করার এক মাস না পেরোতেই এবার এক শিক্ষককে খন্ড খন্ড করে হত্যার হুমকি দেয়া হয়েছে। বৃহস্পতিবার সকালে বিশ্ববিদ্যালয়ের সমাজবিজ্ঞান বিভাগের অধ্যাপক মুহাম্মদ হাসান ইমামকে লাল কালিতে লেখা উড়োচিঠির মাধ্যমে এই হুমকি দেয়া হয়। অধ্যাপক হাসান ইমাম ‘সাপ্তাহিক বিচিত্রার আলোকে মুক্তিযুদ্ধের খন্ডচিত্র’ নামের একটি বইয়ের রচয়িতা। এদিন দুপুরে নিরাপত্তা চেয়ে তিনি থানায় জিডি করেছেন।

অধ্যাপক হাসান ইমাম জানান, সকাল ১০টার সময় তিনি বিশ্ববিদ্যালয়ের মমতাজউদ্দিন কলা ভবনে অবস্থিত তার চেম্বারে গেলে নাম ঠিকানাহীন একটি চিঠি দেখতে পান। চিঠিতে লাল কালিতে লেখা ছিল, ‘অপেক্ষা কর তুইও তোর খন্ডচিত্র দেখতে পাবি।’ এরপর তিনি আতঙ্কিত হয়ে বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রক্টর অধ্যাপক মজিবুল হক আজাদকে ঘটনাটি অবহিত করেন। পরে নগরীর মতিহার থানার পুলিশ এসে তাকে বাসায় নিয়ে যায়। মুক্তিযুদ্ধের ওপর বই লেখার জন্যই তাকে এরকম হুমকি দেয়া হয়েছে বলে আশঙ্কা করছেন এই অধ্যাপক।

এ বিষয়ে বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রক্টর অধ্যাপক মজিবুল হক আজাদ বলেন, অধ্যাপক রেজাউল করিম হত্যাকাণ্ডের পর আমরা স্বাভাবিকভাবেই নিরাপত্তাহীনতাই ভুগছি। তারপর এরকম হুমকির ঘটনা খুবই উদ্বেগের। বিষয়টি আইন-শৃঙ্খলা বাহিনীকে জানিয়ে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নিতে বলেছি।

এ ব্যাপারে নগরীর মতিহার থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি, তদন্ত) অশোক চৌহান বলেন, বিষয়টি জানার পরপরই থানার উপপরিদর্শক আজাহার আলীকে তদন্তের দায়িত্ব দিয়েছি। হুমকির বিষয়টি তদন্ত করে দ্রুততম সময়ে ব্যবস্থা নেয়া হবে।

এর আগেও বিভিন্ন সময় রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়ের ভিসিসহ অর্ধশত শিক্ষক হুমকি পেয়েছেন। এদের মধ্যে অনেকে থানায় জিডিও করেছেন। কিন্তু পুলিশ হুমকিদাতাদের ধরতে সক্ষম হয়নি। সর্বশেষ গত ১৭ মে চাঁদা চেয়ে দুই শিক্ষককে হত্যার হুমকি দেয়া হয়।

গত ২৩ এপ্রিল বিশ্ববিদ্যালয়ের ইংরেজী বিভাগের শিক্ষক অধ্যাপক রেজাউল করিম সিদ্দিকীকে তার বাড়ির কাছে কুপিয়ে হত্যা করে দুর্বত্তরা। এ ঘটনায় দায় স্বীকার করে আদালতে জবানবন্দী দিয়েছে এক জেএমবি সদস্য।